উপজেলা পরিষদ নির্বাচন বড়লেখায় আলোচনায়  ইউপি চেয়ারম্যান সোয়েব

ফেব্রুয়ারী ৯, ২০১৯, ১১:৫৫ পূর্বাহ্ণ এই সংবাদটি ৪৮ বার পঠিত

বড়লেখা প্রতিনিধি॥ বড়লেখা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে নেতাকর্মীর আলোচনায় রয়েছেন আ’লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী সোয়েব আহমদ। তিনি উপজেলা আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও সদর ইউনিয়নের দ্বিতীয়বারের ইউপি চেয়ারম্যান। তাকে দলীয় চেয়ারম্যান প্রার্থী দেখার দাবীতে ইতিমধ্যে তার অনুসারীরা উপজেলার বিভিন্ন পয়েন্ট ও মেইন রোডের পাশ বিলবোর্ড, ব্যানার ও ফেস্টুনে ভরিয়ে দিয়েছেন।

২৯ জানুয়ারী আ’লীগের বিশেষ বর্ধিত সভায় উপজেলা পরিষদ প্যানেল গঠনে সমঝোতা না হওয়ায় দলের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী উপজেলা চেয়ারম্যান পদের তিন মনোনয়ন প্রত্যাশীর নাম পাঠানো হয় কেন্দ্রে। এরা হলেন বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আ’লীগের সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম সুন্দর, বড়লেখা সদর ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সোয়েব আহমদ, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আ’লীগের সহ-সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা মুহা. সিরাজ উদ্দিন। এ তিন মনোনয়ন প্রত্যাশীর কে পাচ্ছেন নৌকার টিকেট এ নিয়ে এখন বড়লেখার রাজনৈতিক অঙ্গন ও সাধারণ ভোটারের মাঝে চলছে নানা আলোচনা।

বড়লেখা শহরের পান দোকানদার জাবের উদ্দিন জানান ‘সোয়েব ভাইর লগে কেউরর তুলনা অয় না। তাইন অইলা মাইনষর নেতা। দলের মনোনয়ন পাইলে বউত (বিপুল) ভোটে পাশ করিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান অইবা।’ তার কথার সাথে সুর মিলিয়ে বিএনপি সমর্থক নজরুল ইসলাম জানান, ‘দল নয়, ব্যক্তি সোয়েব দল মতের উর্ধ্বে থেকে জনগণের সেবা ও ন্যায় বিচার করেন। এর প্রতিদান হিসেবে জনগণ ইউনিয়নে দু’বার তাকে বিজয়ী করেছেন। এবার দলীয় মনোনয়ন পেলে উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হবেন।’

তার অনুসারী ছাত্রলীগ, যুবলীগ ও আ’লীগের নেতাকর্মী, জনপ্রতিনিধি ও বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় বিলবোর্ড ও ব্যানার টানিয়ে দাবী করছেন সামাজিক বিচারে ন্যায় বিচারক হিসেবে সাধারণ মানুষের কাছে গ্রহণযোগ্য সোয়েব আহমদ যেন উপজেলা চেয়ারম্যান হিসেবে আ’লীগের মনোনয়ন পান।

সোয়েব আহমদ জানান, দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার ব্যাপারে তিনি খুবই আত্মবিশ্বাসী। তবে কেন্দ্রীয় আ’লীগ যাকেই মনোনয়ন দিবে তার পক্ষেই তিনি মাঠে কাজ করবেন।

 

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”