চায়ের সাথে ৫০ বছর

ডিসেম্বর ৭, ২০১৮, ৬:৫০ অপরাহ্ণ এই সংবাদটি ৬৬ বার পঠিত

শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধি॥ চায়ের সবুজ দুনিয়া গড়তে চায়ের রাজ্যেই কাটালেন ৫০ বছর। চা শিল্পকে সমৃদ্ধ করতে তাঁর এই অবদান স্মরীণ করে রাখতে তাই এমন ব্যতিক্রমী আয়োজন। তিনি ফিনলে টি কোম্পানীর ব্যবস্থাপনা পরিচালক এ, কিউ, চৌধুরী ওবিই। কর্মজীবনের ৫০ বছর পুর্তি উপলক্ষ্যে ফিনলে পরিবারের পক্ষ থেকে বালিশিরা ভ্যালি ক্লাবে তাঁর সহকর্মীরা তাঁকে সংর্বধনা দিয়েছেন। গতকাল রাতে আয়োজিত এই সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে বক্তারা এ, কিউ, আই, চৌধুরী ওবিই কর্মময় জীবনের বিস্তারিত আলোচনা করে বলেন এতো দীর্ঘ সময় চায়ের সাথে একনিষ্ট ভাবে কাজ করে যাওয়া লোক বিরল, যার হাত ধরে ফিনলে টি কোম্পানী এগিয়ে গেছে ও চলছে এক অনন্য উচ্চতায়। এ,কিউ,আই, চৌধুরী, ওবিই বহুজাতিক কোম্পানী জেমস ফিনলে লিমিটেডের সহকারী ব্যবস্থাপক হিসেবে শ্রীমঙ্গলস্থ বালিশিরা চা বাগানে ১৯৬৯ সালে ৩০শে নভেম্বর তারিখে যোগদান করেন। পরবর্তীতে ১৯৯৩ সালে সি,ই,ও হিসেবে চট্টগ্রামস্থ ফিনলে প্রধান কার্যালয়ে নতুন জীবন শুরু করেন। ২০০৭ সালে ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবে দায়িত্ত প্রাপ্ত হন এবং অদ্যবদী ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবে দায়িত্বে আছেন। এ,কিউ,আই, চৌধুরী তাঁর যোগ্য নেতৃত্বে ফিনলে টি কোম্পানী একটি খ্যাতি সম্পন্ন এবং বৃহৎ টি কোম্পানিতে পরিণত হয়েছে এবং জেমস ফিনলে দি প্রেস্টিজিয়াস ব্রিটিশ মনারকি এক্রিডিটেড রিও টিন্টো এ্যাওয়ার্ডও পায়। ব্যবসায় এবং বাণিজ্যে গুরুত্বপূর্ন অবদান রাখার জন্য বৃটিশ রাণী কর্তৃক অর্ডার অব বৃটিশ এ্যাম্পায়ার ওবিই খেতাব পান। ব্যবসায় ও বাণিজ্যে স্বীকৃতি স্বরুপ বাংলাদেশ সরকারও অনেক বার চৌধুরীকে সিইপি উপাধিতে সম্মাননা দেন। চৌধুরী ওবিই এর দীর্ঘ কর্মজীবনে ফিনলে টি এর যাবতীয় কার্যক্রম পরিচালনার পাশাপাশি চেয়ারম্যান-বাংলাদেশ টি এসোসিয়েশনের ভাইস প্রেসিডেন্ট-বাংলাদেশ এমপ¬য়ার ফেডারেশন, চেয়ারম্যন-চিটাগাং ক্লাব, চেয়ারম্যান-রয়েল কোম্পানী লিমিটেড, ভাইস প্রেসিডেন্ট-চিটাগাং স্টক এক্সচেঞ্জ লিমিটেড, মেম্বার-ওয়েজ বোর্ড ফর প্লান্টেশন সেক্টর, মেম্বার-বাংলাদেশ টি বোর্ড, রিপ্রেজেন্টেটিব-অন দা ট্রাইপারটাইট লেবার কন্সাল্টিব কমিটি, মিনিস্ট্রি অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজ, মেম্বার-কন্সাল্টিব কমিটি চিটাগাং পোর্ট, রিপ্রেজেন্টেটিব অব সাউথ এশিয়ান রিজিয়ন সহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ন দায়িত্ব পালন করেন। তিনি ইউএন এর বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সেমিনারে প্রতিনিধিত্বও করেন। চৌধুরী ওবিই স্ত্রী ও দুই পুত্র সহ চট্রগ্রামস্থ চট্টেশ্বরী রোডে ফিনলে বাংলোতে বসবাস করছেন। অনুষ্ঠানে তাঁর বক্তব্যে চৌধুরী ওবিই এমন আয়োজনের জন্য সবাইকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়ে দোয়া চান, যাতে করে আমৃত্যু দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের জন্য বিশেষ করে বাংলাদেশ চা বাগানের কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের জন্য ভাল কিছু করতে পারেন। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ চা সংসদ সিলেট ব্রাঞ্চ চেয়ারম্যান ও বাড়াউড়া চা বাগানের জি এম গোলাম মো: শিবলী ও ফিনলে চা বাগানের সিও তাহসিন আহমদ চৌধুরী প্রমুখ।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”