জালালাবাদ এসোসিয়েশনের নির্বাচন-কুলাউড়ায় মুবিন-রউফ পরিষদের মতবিনিময়

অক্টোবর ১০, ২০১৮, ৭:২৯ অপরাহ্ণ এই সংবাদটি ১৫৯ বার পঠিত

কুলাউড়া প্রতিনিধি॥ কুলাউড়া মতবিনিময় শেষে সাবেক সচিব সভাপতি প্রার্থী ড. এ কে আব্দুল মুবিনসহ অতিথিরা বলেন ‘গড়ে তুলি সমৃদ্ধ জালালাবাদ’ এ শে¬াগানকে ধারন করে ১৯৪৮ সালে প্রতিষ্ঠিত জালালাবাদ এসোসিয়েশন এর নির্বাচন আগামী ২৭ অক্টোবর । উক্ত নির্বাচনকে সামনে রেখে নির্বাচনী পরিষদ ৫ অক্টোবর সিলেট থেকে নির্বাচনী ক্যাম্পেইন শুরু করেছে।

তারই ধারাবাহিকতায় ৬ অক্টোবর শনিবার কুলাউড়ার জনপ্রতিনিধি,সুশীলসমাজের প্রতিনিধি,সাংবাদিক ও জালালাবাদ এসোসিয়েশনের ভোটারদের সাথে মতবিনিময় করেন কুলাউড়া সার্কিট হাউজে।

মতবিনিময় সভায় কুলাউড়া ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ সৌম্য প্রদীপ ভট্রাচার্য সজলের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখে সাবেক সচিব ও জালালাবাদ এসোসিয়েশনের সভাপতি প্রার্থী ড. এ কে আব্দুল মুবিন।

জনপ্রশাসন মন্ত্রনালয়ের অতিরিক্ত সচিব এম,আব্দুর রউফ এর পরিচালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সহ সভাপতি প্রার্থী আব্দুল মজিদ চৌধুরী, বিদায়ী সেক্রেটারী সৈয়দ জগলুল পাশা, যুগ্ন সাধারন সম্পাদক প্রার্থী ফাহিমা খানম চৌধুরী মনি,উপজেলা চেয়ারম্যান আসম কামরুল ইসলাম, উপাধ্যক্ষ আব্দুল হান্নান,অধ্যক্ষ সিপার উদ্দিন আহমদ প্রমুখ। এছাড়াও বক্তব্য রাখেন আব্দুল বাছিত,কুলাউড়া ব্যবসায়ী কল্যান সমিতির সভাপতি বদরুজ্জামান সজল,পৌর আওয়ামীলীগের সেক্রেটারী গৌরা দে,ব্যবসায়ী কল্যান সমিতির সেক্রেটারী মঈনুল ইসলাম শামীম প্রমুখ।

অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন সাবেক সচিব মাহমুদা আখতার মীনা,অধ্যাপক সালমা বেগম মুকুল।

বক্তারা বলেন,জালালাবাদ এসোসিয়েশন ঢাকার মধ্যে সিলেটবাসীর প্রানের সংগঠন হলেও এর বিস্তৃতি এখন বিশ্বব্যাপী। সারা বিশ্বের ৫০ টি দেশে জালালাবাদ এসোসিয়েশনের কার্যক্রম রয়েছে। ৭০ বছরের এ সংগঠনটির শুধূ আমেরিকায় ১৭ হাজার সদস্য রয়েছে। লন্ডনে নিজস্ব ভবন রয়েছে। ঢাকায় ১৪ তলা ভবন রয়েছে। ২ মিলিয়ন ফান্ড রয়েছে। দেশের সকল এলাকায় জালালাবাদ এসোসিয়েশনের কমিটিও রয়েছে। তিনি বলেন, জালালাবাদ এসোসিয়েশন বর্তমান বছরে ৭০ বছর তথা প¬াটিনাম জুবিলীবর্ষে উপনীত হয়েছে। পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনার আওতায় জালালাবাদ অঞ্চলের শিক্ষা,স্বাস্থ্য,অবকাঠামো,বিনিয়োগ,পরিবেশ,পর্যটন ও যোগাযোগ,পরিবহন, সামাজিক কল্যান,নদী ও হাওর উন্নয়নসহ অর্থনৈতিক উন্নয়নে কার্যক্রর ভুমিকা পালন করছে। এছাড়াও যোগাযোগ ব্যবস্থা উন্নয়ন,বন্যা প্রতিরোধ ও হাওর রক্ষা, শিল্প উন্নয়ন,শিক্ষা,ভবন প্রকল্প,বিশ্বব্যাপী সাংগঠনিক সংযোগ,এনআরবি সহায়তা ,কর্মসংস্থান সহায়তা,সংস্কৃতি ও ঐতিয্য সংরক্ষনের জন্য জালালাবাদ এসোসিয়শন কাজ করে যাচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, শিক্ষাক্ষেত্রে সিলেটকে এগিয়ে নিতে জালালাবাদ এসোসিয়েশন একটি প্রকল্প গ্রহন করেছে। এছাড়াও সিলেটীদের ঢাকায় গিয়ে শিক্ষা এবং চিকিৎসাক্ষেত্রে যাতে কোন বিড়ম্বনায় পড়তে না হয় সেজন্যে জালালাবাদ এসোসিয়েশন কাজ করে যাচ্ছে। এর জন্য ফান্ডও রয়েছে। এখন শুধু বাস্তবায়নের পালা।

তারা আগামী ২৭ অক্টোবরের নির্বাচনে দল মত নির্বিশেষে সকলের সহযোগীতা কামনা করেন।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”