জুড়ীতে সংবাদ সম্মেলনে আওয়ামীলীগ নেতা ফয়াজ আলীর অভিযোগ নেতৃবৃন্দ তৃণমূলকে মূল্যায়ন করেননি

নভেম্বর ২৮, ২০১৭, ১১:০১ অপরাহ্ণ এই সংবাদটি ১২৬ বার পঠিত

শামীম আহমদ॥ জুড়ী উপজেলার ফুলতলা ইউনিয়ন পরিষদের সাধারণ নির্বাচনে দলীয় প্রার্থী বাছাইয়ের বিষয়ে জেলা ও উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতৃত্ব দলের গঠণতন্ত্র লঙন করে তৃণমূলকে মূল্যায়ন করেন নি এবং নিজেদের প্রতিশ্রুতি রক্ষা করেন নি বলে অভিযোগ করেছেন ফুলতলা ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ ফয়াজ আলী।
২৮ নভেম্বর মঙ্গলবার দুপুর ১টায় ফুলতলাস্থ নিজ বাড়ীতে এক সংবাদ সম্মেলন বক্তব্য রাখেন। তিনি বলেন, প্রার্থী বাচাইয়ের বিষয়ে গত ১৭নভেম্বর সন্ধ্যায় জুড়ী ডাকবাংলোতে স্থানীয় সংসদ সদস্য হুইপ মোঃ শাহাব উদ্দিন এবং জেলা ও উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিতে এক সভা অনুষ্টিত হয়। সভায় দলীয় সম্ভাব্য ৫ প্রার্থীর মধ্যে ৩জন প্রার্থীতা প্রত্যাহার করেন। সর্বশেষ দুই প্রার্থী ছিলাম আমি ও মাসুক আহমদ। আমি দলীয় প্রার্থী বাচাইয়ে তৃণমূলের কাউন্সিলের দাবি জানালে নেতৃবৃন্দ আমার প্রস্তাবে

গুরুত্ব না দিয়ে দু’জনের নাম কেন্দ্রে পাঠানোর কথা বলে সভা শেষ করেন। পরে বিশ্বস্থ সূত্রে জানতে পারলাম নেতৃবৃন্দ তাঁদের কথা না রেখে আমার নাম বাদ দিয়ে কেন্দ্রে একক ভাবে মাসুক আহমদের নাম প্রেরণ করেন। তৃণমূলের নেতাকর্মী এই বৈষম্যমূলক সিদ্ধান্ত মেনে নেয় নি বিধায় তাঁদের চাপে আমি স্বতন্ত্র ভাবে নির্বাচন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। তিনি বলেন, ‘আমি ২০০৩ সাল থেকে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সম্পাদক, ২০০৭ সাল থেকে ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক এবং চলতি বছরের মে মাসে অনুষ্টিত কাউন্সিলে তৃণমূলের বিপুল ভোটে নির্বাচিত হয়ে সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করছি। সেই সাথে জনগণের ভোটে ৫বার নির্বাচিত হয়ে ইউপি সদস্য ও ২০০৯ থেকে ২০১১ পর্যন্ত ফুলতলা ইউনিয়ন পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ছিলাম। সর্বশেষ ২০১১ সালের সাধারণ নির্বাচনে বিপুল ভোটে নির্বাচিত চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছি। ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে তৃণমূলে দলকে সংগঠিত করতে আমি নিরলস কাজ করেছি। এমনকি চেয়ারম্যান হিসেবে ইউনিয়নে ব্যাপক উন্নয়ন কাজ করেছি। সেই সুবাধে তৃণমূলের নেতাকর্মীসহ ইউনিয়নের সাধারণ ভোটার আমার সাথে আছেন। দলের উপজেলা ও জেলা নেতৃবৃন্দ আমাকে অন্ধকারে রেখে দাবা খেলেছিলেন, ইনশা আল্লাহ মানুষ আমাকে নির্বাচিত করে পাশা খেলে দলের ভূল সিদ্ধান্তের জবাব দিবে’। সংবাদ সম্মেলনে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগের বহু নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।
 

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”

মন্তব্য করুন