(ভিডিওসহ) প্রাক বাজেট বিষয়ে পৌর মেয়র ফজলুর রহমানের সাংবাদিকদের সাথেমত বিনিময়

মে ১৬, ২০১৮, ৭:৫৪ অপরাহ্ণ এই সংবাদটি ৩০৩ বার পঠিত

স্টাফ রিপোর্টার॥ মৌলভীবাজার পৌরসভার ২০১৮-১৯ অর্থ বছরের প্রাক-বাজেট বিষয়ে পৌরসভার বাজেট কি হবে সে বিষয়ে পরামর্শ চেয়ে মৌলভীবাজার প্রেসক্লাবের সাংবাদিকদের সাথে মত বিনিময় করেছেন মৌলভীবাজার পৌর মেয়র মোঃ ফজলুর রহমান।

১৬ মে বুধবার দুপুরে পৌরসভার সম্মেলন কক্ষে এই মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। মতবিনিময় সভায় মৌলভীবাজার প্রেসক্লাব সভাপতি আবদুল হামিদ মাহবুব, সাধারণ সম্পাদক সালেহ এলাহী কুটি, সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও এনটিভির স্টাফ রিপোর্টার এস এম উমেদ আলী, মাছরাঙা প্রতিনিধি ফেরদৌস আহমেদ, সময় টিভি প্রতিনিধি শাহ অলিদুর রহমান, দৈনিক বাংলার দিন পত্রিকার সম্পাদক বকসি ইকবাল আহমদ, এটিএন বাংলা প্রতিনিধি সৈয়দ মহসীন পারভেজ, বিটিভি প্রতিনিধি হাসানাত কামাল, মৌলভীবাজার টুয়েন্টিফোর সম্পাদক মাহবুবুর রহমান রাহেল, এ.এস কাঁকন, মৌলভীবাজার টোয়েন্টিফোর ডটকমের মাহবুবুর রহমান রাহেল, ফটোনিউজবিডি ডটকমের সম্পাদক এমদাদুল হক, আশরাফ আলী, ওমর ফারুক নাঈম, আমির হোসেন, মনজু বিজয় চৌধুরী প্রমুখ।

এসময় বক্তারা কোদালী ছড়া খনন করে মৌলভীবাজার শহরের ৪০ বছরের জলাবদ্ধতা দূরীকরণ, শহরের পশ্চিমাঞ্চাল সহ বিভিন্ন মহল্লায় জলাবদ্ধতা নিরষনে মেয়রকে ধন্যবাদ জানান সাংবাদিকরা। এছাড়া বেরী লেইক, শহরের যানজট, পাবলিক লাইব্রেরী, মেয়র চত্তর উম্মুক্ত করা, সুইমিং পুল, প্রেসক্লাবের সম্মুখ সহ শহরের বিভিন্ন পয়েন্টের শোভাবর্ধণ, পর্যটকদের উৎসাহিত করতে বর্ষিজোরা ইকোপার্ক শোভাবর্ধনসহ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ, পানি সরবরাহ, বাইপাস সড়ক নির্মাণসহ বিভিন্ন বিষয়ে বাজেটে অর্থ বরাদ্দ রাখতে মেয়রকে পরামর্শ দেন সাংবাদিকরা।

পৌর মেয়র তার বক্তব্যে বলেন, সভায় কুদালীছড়া থেকে বর্জ্য অপসারণের জন্য নৌকার চলাচলের ব্যবস্থার কথা বলা হয়। এছাড়া মৌলভীবাজার শহরকে যানজট মুক্ত করার জন্য কুলাউড়া রোড থেকে রাঙ্গাউটি রিসোর্ট হয়ে মনু নদীর সুইচ গেট হয়ে টিভি হাসপাতাল রোড দিয়ে যান চলাচলের জন্য রাস্তা সম্প্রসারণের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। যার মধ্যে রাস্তার ৮০০মিটার করবে এলজিইডি এবং ৪০০মিটার রাস্তার কাজ করবে জেলা পরিষদ।

জেলার সিনিয়র সিটিজেনদের জন্য পৌর জনমিলন কেন্দ্রে একটি ক্লাব করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। প্রকল্পটি বাস্তবায়নের জন্য ১কোটি টাকা ব্যয় করা হবে। যেখানে ১টি কফিখানা, ১টি লাইব্রেরী, অন্যান্য ধর্মাবলম্বীদের জন্য একটি কক্ষ, মুসলমানদের নামাজের জন্য ১টি কক্ষ ও ১টি টিভি থাকবে। ক্লাবে সিনিয়র সিটিজেনরা বিকাল ৪টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত সময় কাটাবে। এবং প্রতি সিনিয়র সিটিজেনকে একটি করে কার্ড প্রদান করা হবে।

শহরের বড়হাট এলাকায় জলাবদ্ধতা নিরসন করার জন্য একটি সুইচ গেট নির্মাণ করা হবে। যার ফলে বড়হাট এলাকায় জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হবে না।

এমনকি বেরী লেইকে অবৈধ দখলকারী ২০ জনের একটি তালিকা ইতিমধ্যে করা হয়েছে। কিছুদিনের মধ্যে ঐ সমস্ত মালিকদের নিয়ে সার্ভেয়ারের মাধ্যমে লেইকের জায়গা নির্ধারণ করা হবে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, মৌলভীবাজার পৌরসভার নির্বাহী প্রকৌশলী আবুল হোসেন, সচিব মোঃ ইছহাক ভুঁইয়া, কাউন্সিলর জালাল আহমদ ও ফয়ছল আহমদ।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”