বৃষ্টল বাথ ও সাউথ ওয়েষ্ট এ পালিত হয়েছে মুসলমানদের ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদুল ফিতর

জুন ১৯, ২০১৮, ৮:১৭ অপরাহ্ণ এই সংবাদটি ৩৬ বার পঠিত

খায়রুল আলম লিংকন॥ যথাযোগ্য মর্যাদায় ও বিপুল উৎসাহ ও আনন্দ ঘন পরিবেশে বৃষ্টল বাথ ও সাউথ ওয়েষ্ট এ পালিত হয়েছে মুসলিম ধর্মাবলম্বীদের অন্যতম বড় ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদুল ফিতর।

১৫ জুন শুক্রবার বৃষ্টলের সেন্ট্রাল মসজিদ সহ বিভিন্ন মসজিদে সমবেত হয়ে বিভিন্ন দেশের মুসলমানরা ঈদুল আযহা’র নামাজ আদায় করেন। শাহজালাল মসজিদ, জালালাবাদ ইসলামিক কালচারাল সেন্টার,শাহপরান ইসলামিক কালচারাল সেন্টার, বায়তুল মোকাররম ইসলামিক কালচারাল সেন্টার সহ বিভিন্ন স্থানে অনুষ্ঠিত হয় ঈদের একাধিক জামাত। বড় বড় মসজিদগুলোতে একাধিক জামাতে অংশ নেন নারী-পুরুষ নির্বিশেষে মুসল্লিরা। বাংলাদেশীসহ মুসলমান অধ্যুষিত এলাকাগুলোতে ঈদের ছিল এক আলাদা আমেজ।

ঈদের জামাতে দেওয়া খুতবায় বলা হয়, ‘ইসলাম শান্তির ধর্ম। ইসলামের সৌন্দর্যের অন্যতম হচ্ছে একে অন্যকে সাহায্য করা; একে অন্যের প্রতি দয়া করা; খারাপ কাজ ও অশ্লীলতা থেকে দূরে থাকা। ইসলামে সন্ত্রাসের কোনো স্থান নেই। একজন মুমিন কখনোই অন্যায়ভাবে কারো রক্ত ঝরাতে পারে না। ধর্ম নিয়ে বাড়াবাড়ি করতে নিষেধ করা হয়েছে ইসলামে। ’

বিশ্ব মুসলিম উম্মার সুখ, শান্তি ও উন্নতি কামনা করে বিশেষ মোনাজাত। ঈদ জামাতের পূর্বে বৃষ্টল সেন্ট্রাল মসজিদ কমিটির পক্ষ থেকেসঈদের শুভেচ্ছা জানান মসজিদ পরিচালনা কমিটির সভাপতি আব্দুর রাজিক, শাহজালাল মসজিদ কমিটির ট্রাষ্টী এম এ ওয়াহাব ,জালালাবাদ ইসলামিক কালচারাল সেন্টারের খতিব মৌলানা সৈয়দ মুয়িদুল ইসলাম. রোদ্রজ্জ্বল চমৎকার আবহাওয়া থাকাতে প্রতিটি জামাতে মুসল্লীদের উপস্থিতি ছিল লক্ষনীয়. রঙ-বেরঙের বাহারী পোশাক বিশেষ করে প্রবাসী বাংলাদেশীদের ঐহিত্যবাহি পাঞ্জাবি-পায়াজামা মাথায় টুপী এবং বিপুল সংখ্যক মুসলিমদের একত্রে নামাজে অংশগ্রহণের দৃশ্য মূলধারার মানুষকে চমকিত করেছে. বিশিষ্ট জনদের মধ্যে জামাতে অংশগ্রহণ করেন বাংলাদেশ হাউজ সভাপতি ফকরুল আলী, সাধারণ সম্পাদক মোর্শেদ আহমদ মত্তচির, বৃষ্টল বাংলা প্রেস ক্লাবের সভাপতি কামরুল ইসলাম, প্রেসক্লাব সাধারণ সম্পাদক ও এটি এন বাংলা ইউ কে এর প্রতিনিধি খায়রুল আলম লিংকন,মখলিছ মিয়া, গ্রেটার সিলেট ওয়েলফেয়ার কাউন্সিল সাউথ ওয়েষ্ট রিজিয়নের সেক্রেটারি সৈয়দ আবু সাঈদ, ট্রেজারার সৈয়দ আখলাকুল আম্বিয়া রাবেল,আওয়ামীলীগ ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক ইসলাম উদ্দীন,যুবলীগ সাধারন সম্পাদক লিটন আলম বদরুল, সহ-সভাপতি আব্দুল মুকিত,সহ-সাধারন সম্পাদক ইমদাদুর রহমান রাসেল, তারিফুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক আমিনুর রহমান জুনেল,আব্দুল হামিদ,ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক হাবিবুর রহমান,কমিউনিটি নেতা জহির আহমদ চৌধুরী আহবাব,বেদার আহমদ চৌধুরী,ব্যবসায়ি নেতা মোছলেহ আহমদ, মাসুক মিয়া,ছমরুল হক,জিয়াঊল হক,শফিকুর রহমান চৌধুরী, বি.এন পির সহ-সভাপতি কাইয়ুম খান প্রমুখ।

 

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”