বড়লেখায় ব্যবসায়ীর ১০ লাখ টাকা ছিনতাই ৪ ঘন্টার মধ্যে পুলিশের অভিযানে উদ্ধার, গ্রেপ্তার ২

ডিসেম্বর ৮, ২০১৮, ১০:৪৪ অপরাহ্ণ এই সংবাদটি ৬১ বার পঠিত

বড়লেখা প্রতিনিধি॥ বড়লেখায় ব্যবসায়ীর ১০ লাখ টাকা ছিনতাইর ৪ ঘন্টার মধ্যে অভিযান চালিয়ে টাকা উদ্ধার ও ২ ছিনতাইকারীকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। জব্দ করেছে ছিনতাইয়ে ব্যবহৃত একটি মোটরসাইকেল। শুক্রবার রাত সাড়ে ১২টায় উপজেলার তালিমপুর এলাকায় ছিনতাইয়ের এই ঘটনাটি ঘটে। ছিনতাইয়ের শিকার ব্যবসয়ীর নাম জুনেদ আহমদ। তিনি বড়লেখা বাজারের ব্যবসায়ী।

 গ্রেপ্তারকৃত ২ ছিনতাইকারী হল উপজেলার তালিমপুর গ্রামের মঈনুল ইসলাম ওরফে ময়না মিয়ার ছেলে মাহফুজ আলম তুহিন (২১) ও কুমারশাইল গ্রামের গিয়াস উদ্দিনের ছেলে জাকারিয়া (২১)। ওই ব্যবসায়ী আটককৃত দুইজন ও অজ্ঞাতনামা আরো দুজনসহ চারজনের বিরুদ্ধে থানায় ছিনতাই মামলা করেছেন। শনিবার গ্রেপ্তারকৃতদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠিয়েছে পুলিশ।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানা গেছে, শুক্রবার রাত ১২টার দিকে উপজেলা সদরের আড়ত ব্যবসায়ী জুনেদ আহমদ দোকান বন্ধ করে গ্রামের বাড়ি বাহারপুরে যান। বাড়ির সামনে পৌঁছামাত্র আচমকা মোটরসাইকেল যোগে ৪ ব্যক্তি ব্যবসায়ী জুনেদের পথরোধ করে দেশীয় অস্ত্রের মুখে তাকে জিম্মি করে সাথে থাকা মাল বিক্রির ১০ লাখ ৮৬০ টাকা ছিনিয়ে নিয়ে দ্রুত পালিয়ে যায়। ঘটনায় হতভম্ব ব্যবসায়ী জুনেদ আহমদ থানায় গিয়ে পুলিশকে বিষয়টি অবহিত করেন। থানার এসআই মাজহারুল ইসলাম ও এসআই অমিতাভ দাস তালুকদার রাতেই অভিযানে নামেন। ৪ ঘন্টার রুদ্ধশ্বাস অভিযানে প্রথমে মাহফুজ আলমকে এবং পরে মাহফুজের কথামতো জাকারিয়াকে গ্রেপ্তার করেন। তাদের কাছ থেকে ছিনতাই হওয়া পুরো টাকা উদ্ধার করা হয়। এ সময় ছিনতাইকাজে ব্যবহৃত একটি মোটরসাইকেলও উদ্ধার করে পুলিশ। এই ঘটনায় জুনেদ আহমদ গ্রেপ্তার দুজনসহ অজ্ঞাতনামা আরও দুজনকে আসামি করে চার জনের নামে শনিবার থানায় ছিনতাই মামলা করেন।

থানার ওসি মো. ইয়াছিনুল হক শনিবার সন্ধ্যায় ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ‘রাতেই ওই ব্যবসায়ী ঘটনাটি আমাকে জানান। সাথে সাথেই অভিযানে নামে পুলিশ। আনুমানিক ৪ ঘন্টার অভিযানে দুজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। উদ্ধার করা হয় পুরো ১০ লাখ টাকা। জব্দ করা ছিনতাই কাজে ব্যবহৃত একটি মোটরসাইকেল। গ্রেপ্তারকৃতদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”