বড়লেখায় ভারপ্রাপ্ত ইউপি চেয়ারম্যানের দায়িত্ব প্রদানে অনিয়মের অভিযোগ

ডিসেম্বর ২, ২০১৭, ২:৫৭ অপরাহ্ণ এই সংবাদটি ৪৩ বার পঠিত

বড়লেখা প্রতিনিধি॥ বড়লেখার ১০নং দক্ষিণভাগ দক্ষিণ ইউপি চেয়ারম্যান আজির উদ্দিনের বিরুদ্ধে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের দায়িত্ব প্রদানে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। এব্যাপারে ১নং প্যানেল চেয়ারম্যান ছওয়াব আলী বুধবার জেলা প্রশাসক বরাবরে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। অনুপস্থিতি বা অন্য যে কোন কারণে চেয়ারম্যান দায়িত্ব পালনে অসমর্থ হলে চেয়ারম্যানের প্যানেল হতে অগ্রাধিকারক্রমে একজন সদস্য চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করবেন। এ আইন অনুসরণযোগ্য। কিন্তু তা অনুসরণ না করে ৩নং প্যানেল চেয়ারম্যান (ইউপি মেম্বার) দেলোয়ার হোসেন দুলালকে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের দায়িত্ব প্রদানে পরিষদের সাধারণ সদস্য ও সংরক্ষিত মহিলা সদস্যদের মাঝে ক্ষোভ ও অসন্তোষ বিরাজ করছে বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে।

অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে, দক্ষিণভাগ দক্ষিণ ইউপির চেয়ারম্যান প্যানেল-১ হলেন ৬নং ওয়ার্ড মেম্বার ছওয়াব আলী। ইউপি চেয়ারম্যান আজির উদ্দিন পবিত্র ওমরাহ পালনের জন্য দায়িত্ব থেকে ছুটি নেন। নিয়ম অনুযায়ী তিনি চেয়ারম্যান প্যানেল-১ ছওয়াব আলীকে ভারপ্রাপ্ত ইউপি চেয়ারম্যানের দায়িত্ব প্রদান করবেন। কিন্তু বিধিবর্হিভুতভাবে আজির উদ্দিন ২৯ নভেম্বর তার খালাতো ভাই চেয়ারম্যান প্যানেল-৩ ও ৩নং ওয়ার্ড মেম্বার মো. দেলোয়ার হোসেন দুলালকে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের দায়িত্ব অর্পন করে সৌদিআরব চলে যান। এতে পরিষদের সকল ইউপি মেম্বার, সংরক্ষিত মহিলা সদস্য ছাড়া সর্ব সাধারণের মধ্যে তীব্র ক্ষোভ ও অসন্তোষ বিরাজ করছে।

অভিযোগকারী চেয়ারম্যান প্যানেল-১ ছওয়াব আলী জানান, ইউপি চেয়ারম্যান আজির উদ্দিন আগেও আমাকে দায়িত্ব দিয়ে বিদেশ সফর করেন। আইন অনুযায়ী এবারও আমাকে দায়িত্ব প্রদানের কথা। কিন্তু আইন ও পরিষদের সকল সদস্যের সর্বসম্মত সিদ্ধান্তকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে তিনি নিজের খালাতো ভাই ও ৩নং প্যানেল চেয়ারম্যান মো. দেলোয়ার হোসেন দুলালকে লিখিতভাকে দায়িত্ব প্রদান করেন।

দায়িত্বপ্রাপ্ত প্যানেল চেয়ারম্যান মো. দেলোয়ার হোসেন দুলাল জানান, ‘চেয়ারম্যান আমাকে লিখিতভাবে এবং রেজুলেশন আকারে ভারপ্রাপ্ত ইউপি চেয়ারম্যানের দায়িত্ব দিয়েছেন। এখানে সব সদস্যের স্বাক্ষর রয়েছে। অভিযোগ কেন করা হয়েছে তা বুঝতে পারছি না। আমাকে দায়িত্ব দেয়ার অনুলিপি প্রশাসনের সকল অফিসে প্রেরণ করা হয়েছে।

ইউএনও মোহাম্মদ সুহেল মাহমুদ জানান, ‘অভিযোগ পেয়েছি। স্থানীয় সরকার (ইউনিয়ন পরিষদ) আইন ২০০৯ এর ৩৩ অনুচ্ছেদে বলা আছে চেয়ারম্যানের অনুপস্থিতি বা অন্য যে কোন কারণে চেয়ারম্যান দায়িত্ব পালনে অসমর্থ হলে তিনি পুনরায় স্বীয় দায়িত্ব পালনে সমর্থ না হওয়া পর্যন্ত চেয়ারম্যানের প্যানেল হইতে অগ্রাধিকারক্রমে একজন সদস্য চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করবেন। এ আইন অনুসরণযোগ্য।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”