মৌলভীবাজার-৩ আসনে ভোটের লড়াইয়ে আওয়ামীলীগ-বিএনপি,বাকিদের দেখা নেই

ডিসেম্বর ১৫, ২০১৮, ১:০৪ পূর্বাহ্ণ এই সংবাদটি ২৯২ বার পঠিত

স্টাফ রিপোর্টার॥ আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মৌলভীবাজার-৩(সদর ও রাজনগর) আসনে নির্বাচন করছেন মোট ৫ প্রার্থী। ভোটের লড়াইয়ে আওয়ামীলীগ ও বিএনপি সরব হলেও বাকিরা একবারেই নিরব। প্রতিটি জাতীয় নির্বাচনে ফলাফল নির্ধারণী এলাকা হিসেবে রাজনগর গুরুত্বপূর্ণ হলেও মাঠে দেখা নেই বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের প্রার্থী লুৎফুর রহমান কামালী (রিক্সা), বাম গণতান্ত্রীক জোটের প্রার্থী মঈনুর রহমান মগনু (মই), ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ থেকে মো. আসলম (হাত পাখা) এ তিন জনের। তবে বাম গণতান্ত্রীক জোটের প্রার্থীর কয়েকটি স্থানে পোষ্টার দেখা গেলেও অন্য ২ প্রার্থী বাংলাদেশ খেলাফত মজলিস ও ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রচারণায় নেই।

এ আসনে আওয়ামীলীগের নৌকা প্রতীকে জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি নেছার আহমদ ও ধানের শীষ প্রতীকে জেলা বিএনপির সভাপতি নাসের রহমান নির্বাচন করছেন। জেলার গুরুত্বপূর্ণ এ আসনে মূল প্রতিদ্বন্দিতা হবে নৌকা ও ধানের শীষের মধ্যে বলে সচেতন মহল মনে করছেন।

আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মহাজোটের প্রার্থী নেছার আহমদ কে বিজয়ী করতে বিভক্ত আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দ ঐক্যবদ্ধ হয়ে ইতোমধ্যে প্রচারনায় ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন। ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে মাঠে আছেন সাবেক অর্থমন্ত্রী এম. সাইফুর রহমানের পুত্র সাবেক সংসদ সদস্য, জেলা বিএনপির সভাপতি নাসের রহমান। তিনিও দলীয় কোন্দল মিমাংসা শেষে নেতাকর্মীকে সাথে নিয়ে বিভিন্ন এলাকায়  প্রচার প্রচারনা চালিয়ে যাচ্ছেন।

মৌলভীবাজার-৩ সংসদীয় আসনের বিভিন্ন এলাকা সরেজমিনে ঘুরে জানাগেছে, জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি নেছার আহমদ মহাজোট থেকে নতুন প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন পেয়ে দলীয় নেতা-কর্মীদের নিয়ে ব্যাপক ভাবে  মাঠে কাজ করে যাচ্ছেন। দীর্ঘদিনের দলীয় অন্তর্দ্বন্দ ও গ্রুপিং এর অবসান হয়ে সবাই কাধে কাধ মিলিয়ে মাঠে কাজ করে যাচ্ছেন। মৌলভীবাজার জেলা ও রাজনগর উপজেলা আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীরা নৌকা প্রতীককে বিজয়ী করতে একতাবদ্ধ।

 এব্যাপারে জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এড. রাধাপদ দেব সজল ও জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য এবং মনসুরনগর ইউপি চেয়ারম্যান মিলন বখত জানান, দলীয় সভানেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে নৌকাকে বিজয়ী করার জন্য মৌলভীবাজার জেলা তথা রাজনগরের সর্বস্তরের আওয়ামী পরিবারের সকল নেতা-কর্মী ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করছে। এবারও মৌলভীবাজার-৩ আসনে নৌকার বিজয় সুনিশ্চিত।

এদিকে মৌলভীবাজার-৩ আসন পূনরুদ্ধারে বিএনপির  নেতাকর্মীরা  ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী সাবেক অর্থমন্ত্রী এম সাইফুর রহমানের পুত্র, সাবেক সংসদ সদস্য এবং জেলা বিএনপির সভাপতি নাসের রহমান দলের নেতাকর্মী ও সাধারণ মানুষকে নিয়ে চষে বেড়াচ্ছেন ভোটারের দ্বারে দ্বারে। ধানের শীষকে বিজয়ী করতে সকল ভেদাভেদ ভুলে ঐক্যবদ্ধ হয়ে দলীয় নেতা-কর্মীরা দিনরাত মাঠে কাজ করছেন। আগামী ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বিএনপির দীর্ঘ দিনের অন্তর্দ্বন্দের অবসান হলে সর্বস্তরের নেতাকর্মীরা এক হয়ে মাঠে কাজ করছেন। এব্যাপারে জেলা ও রাজনগর উপজেলা বিএনপির নেতাকর্মীরা ধানের শীষ প্রতীককে বিজয়ী করতে একতাবদ্ধ।

 জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ও সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান (ভিপি মিজান) জানান, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া এবং গণতন্ত্রকে মুক্ত করতে দলীয় হাই কমান্ডের নির্দেশে ধানের শীষকে বিজয়ী করার জন্য আমরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করছি। বিগত দিনে জেলা বিএনপির বিভক্তির কারনে রাজনগরেও তার প্রভাব পরেছিল, কিন্তু বর্তমানে ঐক্যবদ্ধ হওয়ায় অতীতের সকল ভুল বুঝাবুঝির অবসান হয়েছে। এখন আমরা কাধে কাধ মিলিয়ে ধানের শীষের বিজয়ে কাজ করে যাচ্ছি।

এদিকে এখও ভোটের ময়দানে দেখা মিলেনি বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের প্রার্থী লুৎফুর রহমান কামালী (রিক্সা), বাম গণতান্ত্রীক জোটের প্রার্থী মঈনুর রহমান মগনু (মই), ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ থেকে মো. আসলম (হাত পাখা) এই তিন প্রার্থীকে। ভোট নিয়ে যতটা সরব প্রধান দুই দল আওয়ামীলীগ-বিএনপি ততটাই নিরব অখ্যাত এই তিন প্রার্থী। তাদের নেই কোনো প্রচার-প্রচারনা, নেই পোষ্টার মাইকও। এনিয়ে ভোটাদের মধ্যে রয়েছে নানা প্রশ্ন, নানা কৌতুহল।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”

১টি মন্তব্য “মৌলভীবাজার-৩ আসনে ভোটের লড়াইয়ে আওয়ামীলীগ-বিএনপি,বাকিদের দেখা নেই”

  1. আপনাদের কে কল দিলে আসেন না নিউজ পাটালে ছাপেন না আবার আপনারাই নিউজ করেন আমরা (রিকশা প্রতিকের প্রার্তী নিরব) এটা দুঃখিত হবার মত নিউজ একটু তো যাচাই করতে পারতেন

মন্তব্য করুন