সংবাদ প্রকাশের জের হামলার চেষ্ঠা ও প্রাণনাশের হুমকিতে যুগান্তরের কুলাউড়া প্রতিনিধির পেশাগত দায়িত্ব পালন ব্যাহত

আগস্ট ৪, ২০১৮, ৯:২৭ অপরাহ্ণ এই সংবাদটি ১৮৮ বার পঠিত

বিশেষ প্রতিনিধি॥ সন্ত্রাসী হামলার চেষ্ঠা ও প্রাণনাশের হুমকিতে ৫ দিন ধরে পেশাগত দায়িত্ব পালন করতে পারছেন না দৈনিক যুগান্তরের কুলাউড়া প্রতিনিধি ও প্রেসক্লাব সভাপতি আজিজুল ইসলাম। ৩০ জুলাই রাতে হামলার চেষ্টা চালায় কতিপয় সন্ত্রাসী। ব্যর্থ হয়ে সন্ত্রাসীরা তাকে একটি অফিসে তাকে অবরুদ্ধ করে রাখে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে। এঘটনায়  তিনি কুলাউড়া থানায় সাধারণ ডায়রি করেন। এরপর থেকে সন্ত্রাসীদের অব্যাহত হুমকি-ধমকি ও মহড়ায় নিরাপত্তাহীনতায় গত ৫ দিন ধরে তিনি কুলাউড়া শহরে যাচ্ছেন না।

জানা গেছে, দৈনিক যুগান্তরে  ৩০ জুলাই ১৭ নং পৃষ্ঠায় ‘কুলাউড়া ভাটেরা স্কুল এন্ড কলেজ অধ্যক্ষের অনিয়ম তদন্তে কমিটি’ শীর্ষক একটি সংবাদ প্রকাশের জের ধরে এ দিন রাতে ১৫-১৬ জনের একদল সন্ত্রাসী শহরের উত্তরবাজারস্থ আব্দুর রউফ কমপ্লেক্সে স্থানীয় একটি অনলাইন পত্রিকা অফিসে হানা দেয়। এসময় অন্যান্য লোকজন থাকায় সন্ত্রাসীরা তার ওপর হামলা করতে ব্যর্থ হয়ে অফিসের বাইরে অবস্থান নেয়।

তাৎক্ষণিক বিষয়টি কুলাউড়া থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ শামীম মুসাকে অবহিত করলে তিনি পুলিশ মোতায়েন করলে সন্ত্রাসীরা চলে যায়। তবে যাওয়ার বেলায় সন্ত্রাসীরা তাকে প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে যায়। এঘটনায় আজিজুল ইসলাম কুলাউড়া থানায় সাধারণ ডায়রি করেছেন।

সাংবাদিক আজিজুল ইসলাম জানান, সন্ত্রাসী বাহিনী আমার উপর হামলায় ব্যর্থ হয়ে তারা আমাকে একটি অফিসে অবরুদ্ধ করে রাখে। পুলিশী নিরাপত্তায় আমি অফিস থেকে বেরিয়ে যাই। এরপর নানাভাবে হুমকি ধমকির কারণে নিরাপত্তাহীনতায় ৫ দিন ধরে আমি শহরে বের হতে পারছি না। এতে আমার পেশাগত দায়িত্বপালন ব্যাহত হচ্ছে।

এদিকে ৪ আগষ্ট শনিবার বিকেলে জরুরি সভা করে উক্ত ঘটনার নিন্দা, প্রতিবাদ ও ঘটনার সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে তদন্তক্রমে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানিয়েছে প্রেসক্লাব কুলাউড়া ও রিপোটার্স ইউনিটির নেতৃবৃন্দ।

উল্লেখ্য,২৬ জুন রাতে কুলাউড়া উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মাওলানা ফজলুল হক খান সাহেদের নেতৃত্বে সন্ত্রাসীরা প্রকাশ্যে তার প্রাণনাশের হুমকি দেয়। যদিও পরে বিষয়টি উপজেলা প্রশাসনের হস্তক্ষেপে মিমাংসা হয়।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”