১৩ই জানুয়ারি শেরপুরে মাছের মেলা

জানুয়ারী ১২, ২০১৯, ৬:২১ অপরাহ্ণ এই সংবাদটি ৪৩৫ বার পঠিত

স্টাফ রিপোর্টার॥ মৌলভীবাজার সদর উপজেলার শেরপুরে আগামীকাল ১৩ই জানুয়ারী থেকে শুরু হচ্ছে দুই দিন ব্যাপী ২শত বছরের ঐতিহ্যবাহী মাছের মেলা।

প্রতি বছরের ন্যায় এবারও পৌষ সংক্রান্তির দিন থেকে শুরু হচ্ছে মাছের মেলা, যা এলাকার মানুষের কাছে একটি বড় উৎসবের মত। এই মাছের মেলাকে সিলেট বিভাগের সবচেয়ে বড় মেলা হিসাবে গন্য করা হয়। মাছকে কেন্দ্র করে এমন জমকালো মেলা বাংলাদেশের আর কোথায়ও হয় না বলে জানা গেছে।

দীর্ঘদিন যাবৎ হিন্দুধর্মালম্বীদের পৌষ সংক্রান্তির দিন মৌলভীবাজারের মনু ও কুশিয়ারা নদীর মিলনস্থল মনুমুখ নামক জায়গায় মেলা বসলেও সামাজিক দ্বন্ধের জেরে বিগত কয়েক বছর জেলা প্রশাসনের নির্দেশে শেরপুরের কুশিয়ারা নদীর পাড়ে স্থানীয় মৎস্য ব্যবসায়ীরা আয়োজন করে আসছে। মূলত এটি হিন্দু ধর্মালম্বীদের উৎসব হলেও এই এলাকার সকল ধর্মের মানুষের কাছে এটি একটি বহু আকাঙ্খিত উৎসব।

এদিকে মেলা উপলক্ষে ছেলে বুড়ো সকলের মধ্যে সাজ সাজ রব পড়েছে। চলছে মেলার মাঠের প্রস্তুতি। মেলায় সিলেট অঞ্চলের বিভিন্ন হাওর ও বিলের বিশাল বিশাল দেশি প্রজাতির শোল, গজার, বোয়াল, চিতল, বাঘা আইড় সহ অন্যান্য মাছ আনা হয় যার এক একটির মুল্য লক্ষাধিক টাকাঅ। দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে মানুষ এই মেলায় মাছ কিনতে আসে। ইতিমধ্যে সরকারী দপ্তর থেকে মেলার দোকানের টোল নির্ধারন করে দিয়েছে। মেলার শূঙ্খলা রক্ষার জন্য পর্যাপ্ত ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়েছে বলে স্থানীয় ¤্রশাসনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

মেলায় শত শত মাছের দোকান, খেলনা, কাঠের আসবাব, গৃহস্থলি পন্য সহ প্রায় সহ¯্রাধিক দোকান ও লক্ষাধিক লোকের সমাগম ঘটে দুইদিন ব্যাপী এই মাছের মেলায়। পূর্বে এই মেলাকে কেন্দ্র করে মাসব্যাপী যাত্রা গান, সার্কাস ও পুতুল নাচের নামে নগ্ন নাচ ও রমরমা জুয়ার আসর চলত যা কয়েক বছর যাবৎ বন্ধ করে দিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন।

 

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”