৮ কোটি ৩২ লক্ষ ৬ হাজার ৭০১ টাকা ব্যয়ে কমলগঞ্জে নবনির্মিত ৫০ শয্যা বিশিষ্ট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের শুভ উদ্বোধন

মার্চ ১০, ২০১৮, ১০:৪০ পূর্বাহ্ণ এই সংবাদটি ৩২৩ বার পঠিত

প্রনীত রঞ্জন দেবনাথ॥ কমলগঞ্জে ৮ কোটি ৩২ লক্ষ ৬ হাজার ৭০১ টাকা ব্যয়ে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর (এইচইডি) কর্তৃক বাস্তবায়িত ৩১ থেকে ৫০ শয্যা বিশিষ্ট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের নবনির্মিত ভবনের উদ্বোধন ১০ মাচ শনিবার দুপুর ১টায় অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে শুভ উদ্বোধন করবেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম এমপি। উদ্বোধন শেষে মন্ত্রী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সংলগ্ন মাঠে এক সুধী সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগদান করবেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন উপজেলা হাসপাতাল ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি, সাবেক চিফ হুইপ ও সরকারি প্রতিশ্রুতি সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি, বীর মুক্তিযোদ্ধা উপাধ্যক্ষ মো. আব্দুস শহীদ এমপি।
জানা যায়, ৮ কোটি ৩২ লক্ষ ৬ হাজার ৭০১ টাকা ব্যয়ে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর (এইচইডি) কর্তৃক কমলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সকে ৩১ থেকে ৫০ শয্যায় উন্নীতকরণ ও সংস্কার কাজটি বাস্তবায়ন করে মেসার্স পোদ্দার এন্টারপ্রাইজ এন্ড এসসি। কাজ সমাপ্তির সময়সীমা ছিল ১৮ মাস। ২০১৫ সালের ২ মে কমলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সকে ৩১ শয্যা থেকে ৫০ শয্যায় উন্নীত করণের ভিত্তির প্রস্তর স্থাপন করেছিলেন জাতীয় সংসদের সাবেক চিফ হুইপ, বীর মুক্তিযোদ্ধা উপাধ্যক্ষ মো. আব্দুস শহীদ এমপি।
উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদ ইয়াহহিয়া জানান, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম এমপি একদিনের সরকারি সফরে ১০মার্চ শনিবার কমলগঞ্জে আসছেন। সফরকালে তিনি কমলগঞ্জ উপজেলায় নবনির্মিত ৫০ শয্যা বিশিষ্ট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর উদ্বোধনী ও সুধী সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগদান করবেন। এদিন মন্ত্রী দুপুর ১২ টায় একটি হেলিকপ্টারে যোগে মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জের উদেশ্যে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দর ত্যাগ করবেন। দুপুর সাড়ে ১২টায় কমলগঞ্জে অবতরণ করবেন এবং দুপুর ১টায় কমলগঞ্জ উপজেলায় নবনির্মিত ৫০ শয্যা বিশিষ্ট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর উদ্বোধনী ও সুধী সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগদান করবেন। পরে বিকাল ৩টায় ঢাকার উদেশ্যে হেলিকপ্টার যোগে মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ ত্যাগ করবেন।
এদিকে কমলগঞ্জে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রয়োজনীয় চিকিৎসক ও যন্ত্রপাতি সংকটের কারণে ভেঙ্গে পড়েছে চিকিৎসা সেবা। ফলে চরম ভোগান্তির শিকার রোগীও স্বজনরা। কমলগঞ্জ উপজেলার অধিকাংশ দরিদ্র মানুষ চিকিৎসা সেবা প্রাপ্তির জন্য একমাত্র এই সরকারী হাসপাতালের উপর নির্ভরশীল। কিন্তু হাসপাতালসমূহে প্রয়োজনীয় জনবল না থাকার কারণে উপজেলাবাসী বিশেষ করে দরিদ্র মা ও শিশুরা প্রাপ্য চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। অনতিবিলম্বে প্রয়োজনীয় জনবলের সংস্থান করার জন্য স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রীর নিকট জোর দাবী জানান।
কমলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গাইনী, এনেস্তেসিয়া. সার্জারী, শিশু, মেডিসিনসহ সকল কনসালটেন্ট এর পদ শূণ্য রয়েছে। কনসালটেন্ট না থাকায় সিজারিয়ান সেকশন চালু করা যাচ্ছে না। তাই অবিলম্বে শুণ্য পদে লোক নিয়োগ প্রদান করার জন্য কমলগঞ্জবাসী কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষন করেন। কমলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কোন তথ্য কেন্দ্র না থাকার কারণে হাসপাতালে সেবা নিতে আসা রোগীদের বেশ ভোগান্তির শিকার হতে হচ্ছে। কোথায় কোন ডাক্তার পাওয়া যায় এবং হাসপাতালে কোন কক্ষে কি ধরনের সেবা পাওযা যায় তা না জানার কারনে সেবা গ্রহীতারা যথাযথ চিকিৎসা সেবা পাওয়া থেকে বঞ্চিত ও হয়রানির শিকার হচ্ছেন। এমতাবস্থায় উক্ত স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সমূহে তথ্য কেন্দ্র (ইনফরমেশন ডেক্স) চালু করে সেবা গ্রহীতাদের যথাযথ সেবা পাওয়া নিশ্চিত করার জন্য কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষন করছেন সচেতন কমলগঞ্জবাসী।
কমলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদ ইয়াহহিয়া বলেন, প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি ও ডাক্তার সংকটের মধ্য দিয়ে কমলগঞ্জ উপজেলার বিশাল জনগোষ্ঠীকে চিকিৎসা সেবা দিতে গিয়ে আমরা হিমশিম খাচ্ছি। সংকটের কারণে ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কেন্দ্রের ডাক্তার দিয়ে চিকিৎসা সেবা দেওয়ার কথা স্বীকার করে তিনি আরো বলেন,‘ডাক্তার সহ বিভিন্ন যন্ত্রপাতির সংকট নিরসন করা গেলে মানুষের উন্নত চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করা সম্ভব হবে’।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”