তত্ত্বাবধায়ক ছাড়া দেশ প্রেমিক কোন রাজনৈতিক দল নির্বাচনে অংশ নিবে না -এবাদুর রহমান চৌধুরী

জুলাই ৩১, ২০১৩, ১২:০০ পূর্বাহ্ণ এই সংবাদটি ২ বার পঠিত

কেন্দ্রীয় বিএনপির নির্বাহী সদস্য সাবেক প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট এবাদুর রহমান চৌধুরী বলেছেন, আওয়ামীলীগ সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দলীয় সরকারের অধীনে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন করার যতই ষড়যন্ত্র করুকনা কেন নিরপেক্ষ তত্ত্বাবধায়ক সরকার ছাড়া দেশপ্রেমিক রাজনৈতিক কোন দলই নির্বাচনে অংশ নেবে না। ১৮ দলীয় ঐক্যজোট তত্ত্ববধায়ক সরকার ছাড়া এদেশে কোন নির্বাচন হতে দিবে না। এ দেশের জনগন গণতন্ত্রের সুরক্ষা ও ভোটের অধিকার আদায় করেই ছাড়বে। তিনি ২৮ জুলাই বড়লেখা উপজেলা বিএনপি (কেন্দ্র অনুমোদিত) আয়োজিত ইফতার মাহফিলের আলোচনা সভায় প্রধান অলোচকের বক্তব্যে এসব কথা বলেন। সভার প্রধান অতিথি জেলা বিএনপির সভাপতি এম নাসের রহমান অনিবার্য কারনে উপস্থিত হতে না পারলেও মোবাইল ফোনে বক্তব্য রাখেন। তিনি মাহফিলে আগত নেতাকর্মীদের এবাদুর রহমান চৌধুরীর নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার এবং আগামী নির্বাচনে ১৮ দলীয় জোটের প্রার্থীকে বিজয়ী করার লক্ষে কাজ করার উদাত্ত্ব আহবান জানান। উক্ত ইফতার মাহফিলে ১৮ দলীয় ঐক্যজোট ছাড়াও জাতীয় পার্টি ও হেফাজতে ইসলামের প্রায় ৮ হাজার নেতাকর্মী অংশ নেন। বিশেষ অতিথি ছিলেন জুড়ী উপজেলা বিএনপির আহবায়ক সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান গিয়াস উদ্দিন, জাতীয় পার্টির (এরশাদ) সংসদ সদস্য প্রার্থী আহমেদ রিয়াজ, ইউপি চেয়ারম্যান নছিব আলী, আলাল উদ্দিন, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান কমর উদ্দিন, সাংবাদিক আব্দুর রব, লিটন শরীফ, কাজী রমিজ উদ্দিন, হাসান শামীম। উপজেলা বিএনপির সভাপতি আব্দুল হাফিজের সভাপতিত্বে ও সাধারন সম্পাদক মুজিবুর রহমান খছরুর পরিচালনায় ইফতারপূর্ব আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রাহেনা বেগম হাসনা, পৌর মেয়র ও উপজেলা যুবদলের সভাপতি প্রভাষক ফখরুল ইসলাম, উপজেলা জামায়াতের সাবেক সেক্রেটারী প্রভাষক এমএ মোহাইমিন, খেলাফত মজলিশের সভাপতি মাওলানা কাজী এনামুল হক, জুড়ী উপজেলা বিএনপির আহবায়ক ফখরুল ইসলাম শামীম, বড়লেখা পৌর যুবদলের সভাপতি সাইফুল ইসলাম খোকন, সম্পাদক পৌর কাউন্সিলার আব্দুল হাফিজ ললন, সাবেক উপজেলা ছাত্রদলের সভাপতি আমেরিকা প্রবাসী মিজানুর রহমান, ছাত্রদল নেতা দেলোয়ার হোসেন, আব্দুল কাদির পলাশ, জুয়েল আহমদ, আলতাফ হোসেন, আব্দুল আহাদ প্রমুখ
কেন্দ্রীয় বিএনপির নির্বাহী সদস্য সাবেক প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট এবাদুর রহমান চৌধুরী বলেছেন, আওয়ামীলীগ সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দলীয় সরকারের অধীনে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন করার যতই ষড়যন্ত্র করুকনা কেন নিরপেক্ষ তত্ত্বাবধায়ক সরকার ছাড়া দেশপ্রেমিক রাজনৈতিক কোন দলই নির্বাচনে অংশ নেবে না। ১৮ দলীয় ঐক্যজোট তত্ত্ববধায়ক সরকার ছাড়া এদেশে কোন নির্বাচন হতে দিবে না। এ দেশের জনগন গণতন্ত্রের সুরক্ষা ও ভোটের অধিকার আদায় করেই ছাড়বে। তিনি ২৮ জুলাই বড়লেখা উপজেলা বিএনপি (কেন্দ্র অনুমোদিত) আয়োজিত ইফতার মাহফিলের আলোচনা সভায় প্রধান অলোচকের বক্তব্যে এসব কথা বলেন। সভার প্রধান অতিথি জেলা বিএনপির সভাপতি এম নাসের রহমান অনিবার্য কারনে উপস্থিত হতে না পারলেও মোবাইল ফোনে বক্তব্য রাখেন। তিনি মাহফিলে আগত নেতাকর্মীদের এবাদুর রহমান চৌধুরীর নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার এবং আগামী নির্বাচনে ১৮ দলীয় জোটের প্রার্থীকে বিজয়ী করার লক্ষে কাজ করার উদাত্ত্ব আহবান জানান। উক্ত ইফতার মাহফিলে ১৮ দলীয় ঐক্যজোট ছাড়াও জাতীয় পার্টি ও হেফাজতে ইসলামের প্রায় ৮ হাজার নেতাকর্মী অংশ নেন। বিশেষ অতিথি ছিলেন জুড়ী উপজেলা বিএনপির আহবায়ক সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান গিয়াস উদ্দিন, জাতীয় পার্টির (এরশাদ) সংসদ সদস্য প্রার্থী আহমেদ রিয়াজ, ইউপি চেয়ারম্যান নছিব আলী, আলাল উদ্দিন, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান কমর উদ্দিন, সাংবাদিক আব্দুর রব, লিটন শরীফ, কাজী রমিজ উদ্দিন, হাসান শামীম। উপজেলা বিএনপির সভাপতি আব্দুল হাফিজের সভাপতিত্বে ও সাধারন সম্পাদক মুজিবুর রহমান খছরুর পরিচালনায় ইফতারপূর্ব আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রাহেনা বেগম হাসনা, পৌর মেয়র ও উপজেলা যুবদলের সভাপতি প্রভাষক ফখরুল ইসলাম, উপজেলা জামায়াতের সাবেক সেক্রেটারী প্রভাষক এমএ মোহাইমিন, খেলাফত মজলিশের সভাপতি মাওলানা কাজী এনামুল হক, জুড়ী উপজেলা বিএনপির আহবায়ক ফখরুল ইসলাম শামীম, বড়লেখা পৌর যুবদলের সভাপতি সাইফুল ইসলাম খোকন, সম্পাদক পৌর কাউন্সিলার আব্দুল হাফিজ ললন, সাবেক উপজেলা ছাত্রদলের সভাপতি আমেরিকা প্রবাসী মিজানুর রহমান, ছাত্রদল নেতা দেলোয়ার হোসেন, আব্দুল কাদির পলাশ, জুয়েল আহমদ, আলতাফ হোসেন, আব্দুল আহাদ প্রমুখ বড়লেখা প্রতিনিধি॥

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”

মন্তব্য করুন