প্রয়াত রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী ও ভারতের প্রধানমন্ত্রীর ছবি বিকৃত করার অভিযোগে একজন আটক

আগস্ট ৩, ২০১৩, ১২:০০ পূর্বাহ্ণ এই সংবাদটি ৫ বার পঠিত

বাংলাদেশের প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমান, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী ডঃ মনমোহন সিং-এর ছবি মুঠোফোনে বিকৃত করে প্রচারের অভিযোগে কমলগঞ্জে একটি মামলা হয়েছে। পুলিশ অভিযুক্তকে শুক্রবার কমলগঞ্জ সদর ইউনিয়নের রাজটিলা এলাকা থেকে আটক করে। কমলগঞ্জ থানা সূত্রে জানা যায়, কমলগঞ্জ উপজেলা সদরের সফাত আলী সিনিয়র মাদ্রাসার আলিম দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র কমলগঞ্জ সদর ইউনিয়নের রাজটিলা গ্রামের সাইফুর রহমান তার মুঠোফোনে প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমান, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. দিপু মনি ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং-এর ছবি বিকৃত করে আপত্তিকরভাবে একটি ছবি ও ভিডিও করে। আর এ বিকৃত ছবি স্থানীয়ভাবে লোক সমাগমে নিয়ে প্রচার করতে থাকে। এমনি অভিযোগে ২ আগষ্ট শুক্রবার বেলা ১টায় কমলগঞ্জ থানার পুলিশ অভিযুক্ত মাদ্রাসা ছাত্রকে আটক করে। তার বিরুদ্ধে কমলগঞ্জ থানার এসআই নুর মিয়া বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেন। কমলগঞ্জ থানার ওসি নীহার রঞ্জন নাথ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আটক মাদ্রাসা ছাত্রকে থানা হাজতে রেখে ব্যাপক জ্ঞিাসাবাদ চলছে। এ বিষয়ে পর্ণোগ্রাফি আইনে একটি মামলা হয়েছে। এ অপকর্মের সাথে আরও কেউ জড়িত আছে কিনা পুলিশ খতিয়ে দেখছে। আজ শুক্রবার আটক মাদ্রাসা ছাত্রকে আদালতে প্রেরণ করে রিমান্ড প্রার্থনা করা হবে।
বাংলাদেশের প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমান, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী ডঃ মনমোহন সিং-এর ছবি মুঠোফোনে বিকৃত করে প্রচারের অভিযোগে কমলগঞ্জে একটি মামলা হয়েছে। পুলিশ অভিযুক্তকে শুক্রবার কমলগঞ্জ সদর ইউনিয়নের রাজটিলা এলাকা থেকে আটক করে। কমলগঞ্জ থানা সূত্রে জানা যায়, কমলগঞ্জ উপজেলা সদরের সফাত আলী সিনিয়র মাদ্রাসার আলিম দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র কমলগঞ্জ সদর ইউনিয়নের রাজটিলা গ্রামের সাইফুর রহমান তার মুঠোফোনে প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমান, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. দিপু মনি ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং-এর ছবি বিকৃত করে আপত্তিকরভাবে একটি ছবি ও ভিডিও করে। আর এ বিকৃত ছবি স্থানীয়ভাবে লোক সমাগমে নিয়ে প্রচার করতে থাকে। এমনি অভিযোগে ২ আগষ্ট শুক্রবার বেলা ১টায় কমলগঞ্জ থানার পুলিশ অভিযুক্ত মাদ্রাসা ছাত্রকে আটক করে। তার বিরুদ্ধে কমলগঞ্জ থানার এসআই নুর মিয়া বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেন। কমলগঞ্জ থানার ওসি নীহার রঞ্জন নাথ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আটক মাদ্রাসা ছাত্রকে থানা হাজতে রেখে ব্যাপক জ্ঞিাসাবাদ চলছে। এ বিষয়ে পর্ণোগ্রাফি আইনে একটি মামলা হয়েছে। এ অপকর্মের সাথে আরও কেউ জড়িত আছে কিনা পুলিশ খতিয়ে দেখছে। আজ শুক্রবার আটক মাদ্রাসা ছাত্রকে আদালতে প্রেরণ করে রিমান্ড প্রার্থনা করা হবে। কমলগঞ্জ প্রতিনিধি॥

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”

মন্তব্য করুন