খেলাফত মজলিসের ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত : সিয়াম সাধনার মধ্য দিয়ে দ্বীন প্রতিষ্ঠার যোগ্যতা অর্জন করতে হবে—-যুবায়ের আহমদ চৌধুরী

আগস্ট ৩, ২০১৩, ১২:০০ পূর্বাহ্ণ এই সংবাদটি ৩ বার পঠিত

খেলাফত মজলিস মৌলভীবাজার শহর শাখার উদ্যোগে গত ২৯ জুলাই সোমবার স্থানীয় জাহাঙ্গীর কন্ফারেন্স হলে রমযানের তাৎপর্য শীর্ষক আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। শহর সভাপতি মাও. সৈয়দ মুজাদ্দিদ আলীর সভাপতিত্বে ও সেক্রেটারী সৈয়দ সাইফুর রহমানের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন খেলাফত মজলিসের কেন্দ্রীয় নায়েবে আমীর শায়খুল হাদীস অধ্যাপক মাও. যুবায়ের আহমদ চৌধুরী। বিশেষ অতিথি ছিলেন সংগঠনের জেলা সভাপতি অধ্যপক মাও. আব্দুস সবুর, জেলা সেক্রেটারী রাজনগর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মৌলভীবাজার-৩ (রাজনগর) আসনের ১৮ দলীয় জোটের সংসদ সদস্য পদ প্রার্থী মাও. আহমদ বিলাল। অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, জেলা সহ-সেক্রেটারী হাফিজ মাও. শামছুল ইসলাম, মুহিবুল ইসলাম ও ব্যারিষ্টার মাহফুজুল ইসলাম, রাজনগর উপজেলা সভাপতি মুহিবুর রহমান চৌধুরী, সেক্রেটারী মুহা. জিয়া উদ্দীন ইউসুফ, শ্রীমঙ্গল উপজেলা সভাপতি এমএ রহিম নোমানী, সাবেক কমিশনার হেদায়াতুল্লাহ বেলাল, প্রফেসর আব্দুল হাই প্রমুখ। প্রধান অতিথির বক্তব্যে অধ্যাপক মাও. যুবায়ের আহমদ চৌধুরী বলেন, সিয়াম সাধনার মধ্য দিয়ে দ্বীন প্রতিষ্ঠার যোগ্যতা অর্জন করতে হবে। রমযানের শিক্ষা হচ্ছে জালেমের বিরুদ্ধে দুর্বার আন্দোলন গড়ে তোলা। বাংলেদেশের ওপর এক জালেম সরকার চেপে বসেছে। যারা গভীর রাতে আলেম ওলামা ও নিরিহ ধর্মপ্রাণ মানুষের উপর গুলি চালিয়ে শহীদ করেছে। এ সরকার দেশ বিরোধি, ইসলাম বিরোধি। তাই এ সরকারের বিরোদ্ধে দলমত নির্বিশেষে ঐক্যবদ্ধ দূর্বার গণ আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে।
খেলাফত মজলিস মৌলভীবাজার শহর শাখার উদ্যোগে গত ২৯ জুলাই সোমবার স্থানীয় জাহাঙ্গীর কন্ফারেন্স হলে রমযানের তাৎপর্য শীর্ষক আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। শহর সভাপতি মাও. সৈয়দ মুজাদ্দিদ আলীর সভাপতিত্বে ও সেক্রেটারী সৈয়দ সাইফুর রহমানের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন খেলাফত মজলিসের কেন্দ্রীয় নায়েবে আমীর শায়খুল হাদীস অধ্যাপক মাও. যুবায়ের আহমদ চৌধুরী। বিশেষ অতিথি ছিলেন সংগঠনের জেলা সভাপতি অধ্যপক মাও. আব্দুস সবুর, জেলা সেক্রেটারী রাজনগর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মৌলভীবাজার-৩ (রাজনগর) আসনের ১৮ দলীয় জোটের সংসদ সদস্য পদ প্রার্থী মাও. আহমদ বিলাল। অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, জেলা সহ-সেক্রেটারী হাফিজ মাও. শামছুল ইসলাম, মুহিবুল ইসলাম ও ব্যারিষ্টার মাহফুজুল ইসলাম, রাজনগর উপজেলা সভাপতি মুহিবুর রহমান চৌধুরী, সেক্রেটারী মুহা. জিয়া উদ্দীন ইউসুফ, শ্রীমঙ্গল উপজেলা সভাপতি এমএ রহিম নোমানী, সাবেক কমিশনার হেদায়াতুল্লাহ বেলাল, প্রফেসর আব্দুল হাই প্রমুখ। প্রধান অতিথির বক্তব্যে অধ্যাপক মাও. যুবায়ের আহমদ চৌধুরী বলেন, সিয়াম সাধনার মধ্য দিয়ে দ্বীন প্রতিষ্ঠার যোগ্যতা অর্জন করতে হবে। রমযানের শিক্ষা হচ্ছে জালেমের বিরুদ্ধে দুর্বার আন্দোলন গড়ে তোলা। বাংলেদেশের ওপর এক জালেম সরকার চেপে বসেছে। যারা গভীর রাতে আলেম ওলামা ও নিরিহ ধর্মপ্রাণ মানুষের উপর গুলি চালিয়ে শহীদ করেছে। এ সরকার দেশ বিরোধি, ইসলাম বিরোধি। তাই এ সরকারের বিরোদ্ধে দলমত নির্বিশেষে ঐক্যবদ্ধ দূর্বার গণ আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। স্টাফ রিপোর্টার॥

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”

মন্তব্য করুন