বড়লেখা জরাজীর্ণ ভবনে চলছে আদালতের কার্যক্রম, বৈদ্যুতিক পাখা ছিটকে আইনজীবি আহত

আগস্ট ৩, ২০১৩, ১২:০০ পূর্বাহ্ণ এই সংবাদটি ২ বার পঠিত

দীর্ঘদিন ধরে ঝুঁকিপুর্ণ ভবনে চলেছে বড়লেখা সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের কার্যক্রম। বৃহস্পতিবার এজলাশে আদালত চলাকালিন বৈদ্যুতিক পাখা ছিটকে আহত হন এক সিনিয়র আইনজীবি। এ ঘটনায় অন্যান্য আইনজীবির মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে। পুলিশ ব্যারাক ও কাষ্টরির পলেস্তরা এমনকি ছাদ ধসে পড়ে যে কোন সময় বড় ধরনের দুর্ঘটনার আশংকা রয়েছে। আদালত সূত্রে জানা গেছে, নির্দিষ্ট একটি মামলার শুনানীতে ১ আগষ্ট বৃহস্পতিবার মৌলভীবাজার জজ কোর্টের সিনিয়র আইনজীবি জেলা আইনজীবি সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট ডাঢলি ডেরিক প্রেন্ট্রিস যান বড়লেখা সিনিয়র জুডিশিয়েল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে। দুপুর সাড়ে বারটায় মামলার আরজি উপস্থাপনকালে হঠাৎ তার মাথায় বৈদ্যুতিক পাখা ছিটকে পড়ে। মাথায় আঘাত প্রাপ্ত হলে সহকর্মীরা তাৎক্ষনিক তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। এ দুর্ঘটনার কারনে দীর্ঘক্ষন আদালতের কার্যক্রম স্থগিত থাকে। আশির দশকের গুড়ার দিকে নির্মিত বড়লেখা উপজেলা আদালতের ভবনটি জরাজীর্ণ হয়ে উঠেছে। দীর্ঘদিন সংস্কার না করায় দেয়ালে অসংখ্য ফাটল দেখা দিয়েছে। পলেস্তরাল খসে পড়ে হয়ে উঠেছে মারাত্মক ঝুঁিকপুর্ণ। বিশেষ করে কাষ্টরি ও পুলিশ ব্যারাকের অবস্থা অত্যন্ত নাজুক। উত্তর-পূর্ব দিকের নিরাপত্তা প্রাচীর ফেটে এক দিকে হেলে গেছে। যে কোন সময় ধসে পড়ে বড় ধরনের দুর্ঘটনার আশংকা রয়েছে।
দীর্ঘদিন ধরে ঝুঁকিপুর্ণ ভবনে চলেছে বড়লেখা সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের কার্যক্রম। বৃহস্পতিবার এজলাশে আদালত চলাকালিন বৈদ্যুতিক পাখা ছিটকে আহত হন এক সিনিয়র আইনজীবি। এ ঘটনায় অন্যান্য আইনজীবির মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে। পুলিশ ব্যারাক ও কাষ্টরির পলেস্তরা এমনকি ছাদ ধসে পড়ে যে কোন সময় বড় ধরনের দুর্ঘটনার আশংকা রয়েছে। আদালত সূত্রে জানা গেছে, নির্দিষ্ট একটি মামলার শুনানীতে ১ আগষ্ট বৃহস্পতিবার মৌলভীবাজার জজ কোর্টের সিনিয়র আইনজীবি জেলা আইনজীবি সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট ডাঢলি ডেরিক প্রেন্ট্রিস যান বড়লেখা সিনিয়র জুডিশিয়েল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে। দুপুর সাড়ে বারটায় মামলার আরজি উপস্থাপনকালে হঠাৎ তার মাথায় বৈদ্যুতিক পাখা ছিটকে পড়ে। মাথায় আঘাত প্রাপ্ত হলে সহকর্মীরা তাৎক্ষনিক তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। এ দুর্ঘটনার কারনে দীর্ঘক্ষন আদালতের কার্যক্রম স্থগিত থাকে। আশির দশকের গুড়ার দিকে নির্মিত বড়লেখা উপজেলা আদালতের ভবনটি জরাজীর্ণ হয়ে উঠেছে। দীর্ঘদিন সংস্কার না করায় দেয়ালে অসংখ্য ফাটল দেখা দিয়েছে। পলেস্তরাল খসে পড়ে হয়ে উঠেছে মারাত্মক ঝুঁিকপুর্ণ। বিশেষ করে কাষ্টরি ও পুলিশ ব্যারাকের অবস্থা অত্যন্ত নাজুক। উত্তর-পূর্ব দিকের নিরাপত্তা প্রাচীর ফেটে এক দিকে হেলে গেছে। যে কোন সময় ধসে পড়ে বড় ধরনের দুর্ঘটনার আশংকা রয়েছে। বড়লেখা প্রতিনিধি॥

মন্তব্য করুন