শ্রীমঙ্গলে ছেলে ও পুত্রবধু মিলে মাকে খুনের অভিযোগ

জুলাই ২০, ২০১৩, ১২:০০ পূর্বাহ্ণ এই সংবাদটি ৭ বার পঠিত

শ্রীমঙ্গল উপজেলার সাতগাও নতুনবাজার এলাকায় রাহেলা খাতুন (৭০) নামের এক বৃদ্ধা মহিলাকে তাঁর পুত্র ও পুত্রবধু খুন করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। ২০ জুলাই শনিবার ভোর রাতে ভুনবী ইউনিয়নের সাতগাও গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে। এ ঘটনায় পুলিশ এখনও হত্যাকারী মিজান ও তার স্ত্রীকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি। রাহেলা খাতুন ওই গ্রামের মৃত জনাব আলীর স্ত্রী। পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, দীর্ঘদিন ধরে রাহেলা খাতুনের সাথে তাঁর ছেলে মিজান ও পুত্রবধু এক খন্ড জমি লিখে দেওয়ার জন্য চাপ দিয়ে আসছিলেন। এ নিয়ে শনিবার রাতে তারা মাকে মারধর করেন। এরপর রাহেলা খাতুন পাশের বাড়ি এসে স্থানীয় লোকজনকে ঘটনাটি জানিয়ে কান্নাকাটি করে বাড়ি ফিরে যান। সকাল থেকে রাহেলা বেগমের শোবার ঘরের দরজা খোলা পেয়ে ছেলে মিজান ও পুত্রবধু ঝুলন্ত লাশ দেখে কাউকে না বলে নিজেরাই লাশ নামিয়ে নেন। এবং পাড়া-প্রতিবেশীকে তার মা ষ্টোক করে মারা গেছেন বলে জানান। খবর পেয়ে শ্রীমঙ্গল থানা পুলিশ বিকেল ৩টায় ঘটনাস্থলে গিয়ে রাহেলা বেগমের লাশ উদ্ধার করে মৌলভীবাজারের সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠায়। শ্রীমঙ্গল থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল্লাহ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।
শ্রীমঙ্গল উপজেলার সাতগাও নতুনবাজার এলাকায় রাহেলা খাতুন (৭০) নামের এক বৃদ্ধা মহিলাকে তাঁর পুত্র ও পুত্রবধু খুন করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। ২০ জুলাই শনিবার ভোর রাতে ভুনবী ইউনিয়নের সাতগাও গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে। এ ঘটনায় পুলিশ এখনও হত্যাকারী মিজান ও তার স্ত্রীকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি। রাহেলা খাতুন ওই গ্রামের মৃত জনাব আলীর স্ত্রী। পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, দীর্ঘদিন ধরে রাহেলা খাতুনের সাথে তাঁর ছেলে মিজান ও পুত্রবধু এক খন্ড জমি লিখে দেওয়ার জন্য চাপ দিয়ে আসছিলেন। এ নিয়ে শনিবার রাতে তারা মাকে মারধর করেন। এরপর রাহেলা খাতুন পাশের বাড়ি এসে স্থানীয় লোকজনকে ঘটনাটি জানিয়ে কান্নাকাটি করে বাড়ি ফিরে যান। সকাল থেকে রাহেলা বেগমের শোবার ঘরের দরজা খোলা পেয়ে ছেলে মিজান ও পুত্রবধু ঝুলন্ত লাশ দেখে কাউকে না বলে নিজেরাই লাশ নামিয়ে নেন। এবং পাড়া-প্রতিবেশীকে তার মা ষ্টোক করে মারা গেছেন বলে জানান। খবর পেয়ে শ্রীমঙ্গল থানা পুলিশ বিকেল ৩টায় ঘটনাস্থলে গিয়ে রাহেলা বেগমের লাশ উদ্ধার করে মৌলভীবাজারের সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠায়। শ্রীমঙ্গল থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল্লাহ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। স্টাফ রিপোর্টার॥

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”

মন্তব্য করুন