জাতীয়তাবাদী আইনজীবির ইফতার : জয়ের কাছে তথ্য নয়, আসলে তাঁর হাতে আছে নীলনকশা রয়েছে—নাসের রহমান

আগস্ট ১, ২০১৩, ১২:০০ পূর্বাহ্ণ এই সংবাদটি ৩ বার পঠিত

আমার কাছে তথ্য আছে, নির্বাচনে আওয়ামী লীগই জয়ী হবে প্রধানমন্ত্রীর ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয়ের এমন বক্তব্যের সমালোচনা করে বলেন, ‘জয়ের কাছে তথ্য নয়, আসলে তাঁর হাতে আছে নীলনকশা। সদ্য অনুষ্ঠিত দেশের পাঁচটি সিটি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের ভরাডুবির পর তাঁর এ বক্তব্য ষড়যন্ত্রমূলক। বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও মৌলভীবাজার জেলা বিএনপির সভাপতি এম নাসের রহমান। ৩১ জুলাই বুধবার বিকেলে শহরের কায়ান রেস্টেুরেন্টের হল রুমে আয়োজিত বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী আইনজীবি ফোরাম মৌলভীবাজার জেলা কমিটির ইফতার মাহফিলের আলোচনা সভায় প্রধান অথিতির বক্তব্য রাখতে গিয়ে এ অভিযোগ করেন। এবার তত্ত্বাবধায়ক সরকার এলে তারা ১০ বছরেও নির্বাচন দেবে না প্রধানমন্ত্রীর এমন বক্তব্য উল্লেখ করে তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী এ ধরনের সুনির্দিষ্ট তথ্য কোথায় পেলেন, জানতে চাই। মনে হচ্ছে, তিনি তাঁদের দাওয়াত দিয়ে আনতে চাচ্ছেন। তিনি বলেন, সংসদ নির্বাচন নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের মানুষকে ভীতিকর পরিস্থিতিতে ও রাজনৈতিক ময়দান উত্তেজিত করার চেষ্টা করছেন। নাসের বলেন বলেন, সরকার দলীয় স্বার্থে দেশে সাংবিধানিক সংকট সৃষ্টি করেছে। নির্বাচনকে যদি ভ্যানেটি ব্যাগে বন্দী করা হয়, তাহলে কোনো নির্বাচনই হবে না। কষ্ট করে ওই নির্বাচন না করলেই হয়। প্রধানমন্ত্রী হয়তো সেটাই বোঝাতে চাচ্ছেন। জেলা আইনজীবি ফোরামের সভাপতি এড.মহিউদ্দিন মানিকের সভাপতিত্বে ও এড.আনোয়ার আখতার শিউলী ও এড.মামুনুর রশিদের পরিচালনায় এ সভা অনুঠিত হয়। এতে জেলা বারের শতাধিক আইনজীবি অংশ নেন। তিনি উপস্থিত আইনজীবিদের উদ্দেশে বলেন, বর্তমান সরকার রাজতন্ত্রের চেয়েও খারাপ, স্বৈরাচারের চেয়েও নিকৃষ্ট। জনপ্রতিরোধের মাধ্যমে এ সরকারকে বিদায় করতে হবে। আরও বক্তব্য রাখেন জেলা বারের সাবেক সভাপতি এড.মুজিবুর রহমান মুজিব,এড.সুনীল কুমার দাশ,এড ফারুক আহমেদ,এড ফয়সল আহমেদ,কেন্দ্রীয় যুবদলের সহ সাংগঠনিক সম্পাদক আলহাজ্ব মতিন বকস,জেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক এম এ মুকিত, বিএনপি নেতা মো.ইউছুফ আলী,সদর থানা বিএনপির আহবায়ক মৌলভী আব্দুল ওয়ালী সিদ্দীকি,পৌর বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক আব্দুর রহিম রিপন।
আমার কাছে তথ্য আছে, নির্বাচনে আওয়ামী লীগই জয়ী হবে প্রধানমন্ত্রীর ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয়ের এমন বক্তব্যের সমালোচনা করে বলেন, ‘জয়ের কাছে তথ্য নয়, আসলে তাঁর হাতে আছে নীলনকশা। সদ্য অনুষ্ঠিত দেশের পাঁচটি সিটি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের ভরাডুবির পর তাঁর এ বক্তব্য ষড়যন্ত্রমূলক। বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও মৌলভীবাজার জেলা বিএনপির সভাপতি এম নাসের রহমান। ৩১ জুলাই বুধবার বিকেলে শহরের কায়ান রেস্টেুরেন্টের হল রুমে আয়োজিত বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী আইনজীবি ফোরাম মৌলভীবাজার জেলা কমিটির ইফতার মাহফিলের আলোচনা সভায় প্রধান অথিতির বক্তব্য রাখতে গিয়ে এ অভিযোগ করেন। এবার তত্ত্বাবধায়ক সরকার এলে তারা ১০ বছরেও নির্বাচন দেবে না প্রধানমন্ত্রীর এমন বক্তব্য উল্লেখ করে তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী এ ধরনের সুনির্দিষ্ট তথ্য কোথায় পেলেন, জানতে চাই। মনে হচ্ছে, তিনি তাঁদের দাওয়াত দিয়ে আনতে চাচ্ছেন। তিনি বলেন, সংসদ নির্বাচন নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের মানুষকে ভীতিকর পরিস্থিতিতে ও রাজনৈতিক ময়দান উত্তেজিত করার চেষ্টা করছেন। নাসের বলেন বলেন, সরকার দলীয় স্বার্থে দেশে সাংবিধানিক সংকট সৃষ্টি করেছে। নির্বাচনকে যদি ভ্যানেটি ব্যাগে বন্দী করা হয়, তাহলে কোনো নির্বাচনই হবে না। কষ্ট করে ওই নির্বাচন না করলেই হয়। প্রধানমন্ত্রী হয়তো সেটাই বোঝাতে চাচ্ছেন। জেলা আইনজীবি ফোরামের সভাপতি এড.মহিউদ্দিন মানিকের সভাপতিত্বে ও এড.আনোয়ার আখতার শিউলী ও এড.মামুনুর রশিদের পরিচালনায় এ সভা অনুঠিত হয়। এতে জেলা বারের শতাধিক আইনজীবি অংশ নেন। তিনি উপস্থিত আইনজীবিদের উদ্দেশে বলেন, বর্তমান সরকার রাজতন্ত্রের চেয়েও খারাপ, স্বৈরাচারের চেয়েও নিকৃষ্ট। জনপ্রতিরোধের মাধ্যমে এ সরকারকে বিদায় করতে হবে। আরও বক্তব্য রাখেন জেলা বারের সাবেক সভাপতি এড.মুজিবুর রহমান মুজিব,এড.সুনীল কুমার দাশ,এড ফারুক আহমেদ,এড ফয়সল আহমেদ,কেন্দ্রীয় যুবদলের সহ সাংগঠনিক সম্পাদক আলহাজ্ব মতিন বকস,জেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক এম এ মুকিত, বিএনপি নেতা মো.ইউছুফ আলী,সদর থানা বিএনপির আহবায়ক মৌলভী আব্দুল ওয়ালী সিদ্দীকি,পৌর বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক আব্দুর রহিম রিপন। স্টাফ রিপোর্টার॥

মন্তব্য করুন