মৌলভীবাজারের বাঁধবাজার-খেয়াঘাটবাজার সড়কের বেহাল দশা

জুলাই ৬, ২০১৩, ১২:০০ পূর্বাহ্ণ এই সংবাদটি ৬ বার পঠিত

মৌলভীবাজারের রাজনগর বাঁধবাজার-খেয়াঘাটবাজার সড়কে গাড়ি চলাচল এখন অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। সরেজমিনে দেখা গেছে, সড়কে বিশাল বিশাল গর্ত হয়ে কংক্লিট বের হয়ে গাড়ি চলাচল প্রায় অনুশ্চিত হয়ে পড়েছে। প্রায় ১০ বছর আগে সাবেক অর্থমন্ত্রী এম সাইফুর রহমান বাঁধবাজার (কালাইরগুল) থেকে খেয়াঘাট বাজার হয়ে করাধাইর পর্যন্ত প্রায় ১৭ কিলোমিটার ওয়াপধার রাস্থা এক সাথে পাঁকা করণ করেন। এর পর থেকে এই সড়কটির সংস্কারের কাজ হয়েছে নাই বলেলই চলে। সড়কটি ছোট হওয়ায় অটো রিক্সা ছাড়া চার চাকার কোন যাত্রীবাহী গাড়ি চলাচল করেনা এই সড়কে। এই সড়কের সুনামপুর,উমরপুর,কান্দিগাঁও,জোড়াপুর,রামপুর,সাদাপুর,ও জাহিদপুর এলাকার প্রায় ১০ কিলোমিটিার যায়গায় গর্ত বেশী হওয়ায় যাত্রীবাহী অটোরিক্সা প্রায়ই দূর্ঘটনার শিকার হয়। এলাকাবাসীর দাবী দ্রুত এই সড়কের কয়েক কিলোমিটার রাস্থা সংস্কার করে প্রত্যন্ত অঞ্চলের গাড়ি চলাচলের দ্বার খুলে দেন যেন সংশ্লিষ্ট প্রশাসন। তবে রাজনগর উপজেলা প্রকৌশলী রুবাইয়াত জামান জানান,এই সড়কের কালারবাজার থেকে সুরিখাল পর্যন্ত দেড় কিলোঃ ও কাশিমপুর থেকে সাড়ে ৩কিলোমিটার রাস্থা ইতি মধ্যে সংস্কার হয়েছে। বাকিটা এই বছরের শেষের দিকে হতে পারে।
মৌলভীবাজারের রাজনগর বাঁধবাজার-খেয়াঘাটবাজার সড়কে গাড়ি চলাচল এখন অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। সরেজমিনে দেখা গেছে, সড়কে বিশাল বিশাল গর্ত হয়ে কংক্লিট বের হয়ে গাড়ি চলাচল প্রায় অনুশ্চিত হয়ে পড়েছে। প্রায় ১০ বছর আগে সাবেক অর্থমন্ত্রী এম সাইফুর রহমান বাঁধবাজার (কালাইরগুল) থেকে খেয়াঘাট বাজার হয়ে করাধাইর পর্যন্ত প্রায় ১৭ কিলোমিটার ওয়াপধার রাস্থা এক সাথে পাঁকা করণ করেন। এর পর থেকে এই সড়কটির সংস্কারের কাজ হয়েছে নাই বলেলই চলে। সড়কটি ছোট হওয়ায় অটো রিক্সা ছাড়া চার চাকার কোন যাত্রীবাহী গাড়ি চলাচল করেনা এই সড়কে। এই সড়কের সুনামপুর,উমরপুর,কান্দিগাঁও,জোড়াপুর,রামপুর,সাদাপুর,ও জাহিদপুর এলাকার প্রায় ১০ কিলোমিটিার যায়গায় গর্ত বেশী হওয়ায় যাত্রীবাহী অটোরিক্সা প্রায়ই দূর্ঘটনার শিকার হয়। এলাকাবাসীর দাবী দ্রুত এই সড়কের কয়েক কিলোমিটার রাস্থা সংস্কার করে প্রত্যন্ত অঞ্চলের গাড়ি চলাচলের দ্বার খুলে দেন যেন সংশ্লিষ্ট প্রশাসন। তবে রাজনগর উপজেলা প্রকৌশলী রুবাইয়াত জামান জানান,এই সড়কের কালারবাজার থেকে সুরিখাল পর্যন্ত দেড় কিলোঃ ও কাশিমপুর থেকে সাড়ে ৩কিলোমিটার রাস্থা ইতি মধ্যে সংস্কার হয়েছে। বাকিটা এই বছরের শেষের দিকে হতে পারে। ষ্টাফ রিপোর্টার॥

মন্তব্য করুন