কমলগঞ্জে সাংবাদিককে জড়িয়ে মিথ্যা মামলা ও হুমকি ॥ সাংবাদিকসহ সর্বমহলে তীব্র নিন্দা

জুলাই ১৩, ২০১৩, ১২:০০ পূর্বাহ্ণ এই সংবাদটি ৪ বার পঠিত

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে সরকারী ও ভিপি সম্পত্তি অবৈধভাবে দখল করে ব্যক্তি স্বার্থ হাসিলের জন্য সাংবাদিককে জড়িয়ে মিথ্যা মামলা ও হুমকি প্রদান করায় সাংবাদিকসহ সর্বমহল তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে। নিরাপত্তা চেয়ে সাংবাদিক কমলগঞ্জ থানায় জিডি করেছেন। কমলগঞ্জ উপজেলার পতনউষার ইউনিয়নের ধূপাটিলা গ্রামে জনৈক জোবায়ের মিয়া গত ৭ জুলাই মৌলভীবাজার চিফ জুডিশিয়াল আদালতে দৈনিক ইত্তেফাকের কমলগঞ্জ প্রতিনিধি নূরুল মোহাইমীন মিল্টনকে জড়িয়ে হয়রানি মূলক এই মামলা দায়ের করেন। জানা যায়, ধুপাটিলা গ্রামে সরকারী ও ভিপি সম্পত্তিতে ধর্মীয় অনুভূতিকে কাজে লাগিয়ে জোবায়ের ও তোফায়েল মিয়া ধূপাটিলা গ্রামে ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান নির্মানের নামে জমি দখলের চেষ্টা করলে এলাকাবাসী আপত্তি জানান এবং ইউএনও বরাবরে একটি গণদরখাস্ত প্রদান করেন। এলাকাবাসীর আবেদনের প্রেক্ষিতে সাংবাদিক সমিতি কমলগঞ্জ ইউনিটের সহ-সভাপতি, ইত্তেফাক কমলগঞ্জ প্রতিনিধি নূরুল মোহাইমীন মিল্টন সংবাদ সংগ্রহ করতে চাইলে তাকে হুমকি প্রদান করা হয় ও সাংবাদিককে জড়িয়ে মৌলভীবাজার আদালতে একটি মিথ্যা ও হয়রানিমূলক মামলা দায়ের করেন। নিরাপত্তা চেয়ে গত ৮ জুলাই সাংবাদিক নূরুল মোহাইমীন কমলগঞ্জ থানায় একটি জিডি করেন। হয়রানিমূলক মিথ্যা মামলা ও হুমকি প্রদানে সাংবাদিক সমিতি কমলগঞ্জ ইউনিটের সভাপতি আব্দুল হান্নান চিনু, সম্পাদক কামরুল হাসান, প্রথম আলো পত্রিকার প্রতিনিধি মুজিবুর রহমান রঞ্জু, সমকাল প্রতিনিধি প্রনীত রঞ্জন দেবনাথ, যুগান্তর প্রতিনিধি আব্দুর রাজ্জাক, সাপ্তাহিক কমলগঞ্জ সংবাদ পত্রিকার সম্পাদক সানোয়ার হোসেন, সাপ্তাহিক কমলগঞ্জের কাগজ পত্রিকার সম্পাদক শাহীন আহমদ, মানবজমিন প্রতিনিধি সাজিদুর রহমান, আমার দেশ প্রতিনিধি এস, কে, দাস, সিলেটের ডাক পত্রিকার প্রতিনিধি সুব্রুত দেবরায় সঞ্জয়, নয়াদিগন্ত প্রতিনিধি মোস্তাফিজুর রহমান, ভোরের ডাক প্রতিনিধি জয়নাল আবেদীন, ডেসটিনি প্রতিনিধি পিন্টু দেবনাথ, জাতীয় পার্টি কমলগঞ্জ উপজেলা সভাপতি মো. দুরুদ আলী, তারাপাশা উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের অধ্যক্ষ মো. রহিম খান তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন।
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে সরকারী ও ভিপি সম্পত্তি অবৈধভাবে দখল করে ব্যক্তি স্বার্থ হাসিলের জন্য সাংবাদিককে জড়িয়ে মিথ্যা মামলা ও হুমকি প্রদান করায় সাংবাদিকসহ সর্বমহল তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে। নিরাপত্তা চেয়ে সাংবাদিক কমলগঞ্জ থানায় জিডি করেছেন। কমলগঞ্জ উপজেলার পতনউষার ইউনিয়নের ধূপাটিলা গ্রামে জনৈক জোবায়ের মিয়া গত ৭ জুলাই মৌলভীবাজার চিফ জুডিশিয়াল আদালতে দৈনিক ইত্তেফাকের কমলগঞ্জ প্রতিনিধি নূরুল মোহাইমীন মিল্টনকে জড়িয়ে হয়রানি মূলক এই মামলা দায়ের করেন। জানা যায়, ধুপাটিলা গ্রামে সরকারী ও ভিপি সম্পত্তিতে ধর্মীয় অনুভূতিকে কাজে লাগিয়ে জোবায়ের ও তোফায়েল মিয়া ধূপাটিলা গ্রামে ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান নির্মানের নামে জমি দখলের চেষ্টা করলে এলাকাবাসী আপত্তি জানান এবং ইউএনও বরাবরে একটি গণদরখাস্ত প্রদান করেন। এলাকাবাসীর আবেদনের প্রেক্ষিতে সাংবাদিক সমিতি কমলগঞ্জ ইউনিটের সহ-সভাপতি, ইত্তেফাক কমলগঞ্জ প্রতিনিধি নূরুল মোহাইমীন মিল্টন সংবাদ সংগ্রহ করতে চাইলে তাকে হুমকি প্রদান করা হয় ও সাংবাদিককে জড়িয়ে মৌলভীবাজার আদালতে একটি মিথ্যা ও হয়রানিমূলক মামলা দায়ের করেন। নিরাপত্তা চেয়ে গত ৮ জুলাই সাংবাদিক নূরুল মোহাইমীন কমলগঞ্জ থানায় একটি জিডি করেন। হয়রানিমূলক মিথ্যা মামলা ও হুমকি প্রদানে সাংবাদিক সমিতি কমলগঞ্জ ইউনিটের সভাপতি আব্দুল হান্নান চিনু, সম্পাদক কামরুল হাসান, প্রথম আলো পত্রিকার প্রতিনিধি মুজিবুর রহমান রঞ্জু, সমকাল প্রতিনিধি প্রনীত রঞ্জন দেবনাথ, যুগান্তর প্রতিনিধি আব্দুর রাজ্জাক, সাপ্তাহিক কমলগঞ্জ সংবাদ পত্রিকার সম্পাদক সানোয়ার হোসেন, সাপ্তাহিক কমলগঞ্জের কাগজ পত্রিকার সম্পাদক শাহীন আহমদ, মানবজমিন প্রতিনিধি সাজিদুর রহমান, আমার দেশ প্রতিনিধি এস, কে, দাস, সিলেটের ডাক পত্রিকার প্রতিনিধি সুব্রুত দেবরায় সঞ্জয়, নয়াদিগন্ত প্রতিনিধি মোস্তাফিজুর রহমান, ভোরের ডাক প্রতিনিধি জয়নাল আবেদীন, ডেসটিনি প্রতিনিধি পিন্টু দেবনাথ, জাতীয় পার্টি কমলগঞ্জ উপজেলা সভাপতি মো. দুরুদ আলী, তারাপাশা উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের অধ্যক্ষ মো. রহিম খান তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন। কমলগঞ্জ প্রতিনিধি॥

মন্তব্য করুন