বড়লেখায় প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে পিতা খুন পোল্ট্রি খামারী পুত্র আহত

জুলাই ১৯, ২০১৩, ১২:০০ পূর্বাহ্ণ এই সংবাদটি ৬ বার পঠিত

বড়লেখায় প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে পোল্ট্রি ব্যবসায়ী ছেলের ব্যবসা প্রতিষ্টানে নির্মমভাবে খুন হয়েছেন আলাউদ্দিন নামে এক ষাটোর্ধ পিতা। প্রতিপক্ষ পোল্ট্রি ব্যবসায়ী বদরুল ইসলামকে ছুরিকাঘাত করে দোকান থেকে ধরে নিয়ে যায়। পরে এলাকাবাসী তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। ঘটনাটি ঘঠেছে গত শুক্রবার বাদ জুমা। প্রত্যক্ষদর্শী সুত্রে জানা গেছে, উপজেলার রুকনপুর গ্রামের পোল্ট্রি খামারী বদরুল ইসলাম ও তার পিতা আলাউদ্দিন (৬৫) কাঠালতলী বাজারস্থ পোল্ট্রি দোকানে বসা ছিলেন। এসময় একই গ্রামের আছার উদ্দিনের ছেলে আব্দুল মালিক ও আব্দুল গনি ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী নিয়ে বদরুল ইসলাম ও তার পিতা আলাউদ্দিকে ছুরিকাঘাত করে। পিতা পুত্র গুরুতর আহত অবস্থায় বদরুল ইসলামকে তারা ধরে নিয়ে য়ায়। এলাকাবাসী আহত আলাউদ্দিন ও বদরুল ইসলামকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়ার পথিমধ্যে আলাউদ্দিন মারা যান।
বড়লেখায় প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে পোল্ট্রি ব্যবসায়ী ছেলের ব্যবসা প্রতিষ্টানে নির্মমভাবে খুন হয়েছেন আলাউদ্দিন নামে এক ষাটোর্ধ পিতা। প্রতিপক্ষ পোল্ট্রি ব্যবসায়ী বদরুল ইসলামকে ছুরিকাঘাত করে দোকান থেকে ধরে নিয়ে যায়। পরে এলাকাবাসী তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। ঘটনাটি ঘঠেছে গত শুক্রবার বাদ জুমা। প্রত্যক্ষদর্শী সুত্রে জানা গেছে, উপজেলার রুকনপুর গ্রামের পোল্ট্রি খামারী বদরুল ইসলাম ও তার পিতা আলাউদ্দিন (৬৫) কাঠালতলী বাজারস্থ পোল্ট্রি দোকানে বসা ছিলেন। এসময় একই গ্রামের আছার উদ্দিনের ছেলে আব্দুল মালিক ও আব্দুল গনি ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী নিয়ে বদরুল ইসলাম ও তার পিতা আলাউদ্দিকে ছুরিকাঘাত করে। পিতা পুত্র গুরুতর আহত অবস্থায় বদরুল ইসলামকে তারা ধরে নিয়ে য়ায়। এলাকাবাসী আহত আলাউদ্দিন ও বদরুল ইসলামকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়ার পথিমধ্যে আলাউদ্দিন মারা যান। বড়লেখা প্রতিনিধি॥

মন্তব্য করুন